ঢাকা ০৪:৩৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অবৈধ জুস তৈরির কারখানায় অভিযান, ১০ লাখ টাকা জরিমানা

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৪:০৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪
  • / ৩১১ বার পড়া হয়েছে

কেরানীগঞ্জে জেনেরিক এ্যাগ্রো নামের একটি অবৈধ জুস তৈরির কারখানায় এনএসআইয়ের তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একইসঙ্গে কারখানা ও কারখানা কম্পাউন্ডে মালিকপক্ষের অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সব কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

রোববার (১৯ মে) কেরানীগঞ্জ থানার কালিন্দী ইউনিয়নের খাগাইল জিয়ানগর মোড়ে এ অভিযান চালানো হয়।

এ সময় কারখানায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বিভিন্ন দেশি-বিদেশি মোড়কে ম্যাংগো ড্রিংকস, লিচি ড্রিংকস, ফুড কালার, মসলাসহ প্রায় ২৫ ধরনের অবৈধ আইটেমসহ প্রায় অর্ধশত আইটেমের মোড়ক ও কাঁচামাল পাওয়া গেছে।

অভিযানে অবৈধভাবে এসব পণ্য তৈরি ও বাজারজাত করার অপরাধে কারখানার মালিকপক্ষের শেখ মোহাম্মদ সানাউল্লাহসহ তিনজনের উপস্থিতিতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯-এর ধারা অনুযায়ী অভিযোগ গঠন করে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি কারখানা ও কারখানা কম্পাউন্ডে মালিকপক্ষের অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়।

আগামী পাঁচদিনের মধ্যে জরিমানা পরিশোধ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়। যথাসময়ে জরিমানা পরিশোধ করা না হলে পরবর্তীতে অধিকতর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও হুঁশিয়ার করা হয়।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

অবৈধ জুস তৈরির কারখানায় অভিযান, ১০ লাখ টাকা জরিমানা

আপডেট সময় : ০৯:৫৪:০৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪

কেরানীগঞ্জে জেনেরিক এ্যাগ্রো নামের একটি অবৈধ জুস তৈরির কারখানায় এনএসআইয়ের তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একইসঙ্গে কারখানা ও কারখানা কম্পাউন্ডে মালিকপক্ষের অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সব কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

রোববার (১৯ মে) কেরানীগঞ্জ থানার কালিন্দী ইউনিয়নের খাগাইল জিয়ানগর মোড়ে এ অভিযান চালানো হয়।

এ সময় কারখানায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বিভিন্ন দেশি-বিদেশি মোড়কে ম্যাংগো ড্রিংকস, লিচি ড্রিংকস, ফুড কালার, মসলাসহ প্রায় ২৫ ধরনের অবৈধ আইটেমসহ প্রায় অর্ধশত আইটেমের মোড়ক ও কাঁচামাল পাওয়া গেছে।

অভিযানে অবৈধভাবে এসব পণ্য তৈরি ও বাজারজাত করার অপরাধে কারখানার মালিকপক্ষের শেখ মোহাম্মদ সানাউল্লাহসহ তিনজনের উপস্থিতিতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯-এর ধারা অনুযায়ী অভিযোগ গঠন করে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি কারখানা ও কারখানা কম্পাউন্ডে মালিকপক্ষের অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেওয়া হয়।

আগামী পাঁচদিনের মধ্যে জরিমানা পরিশোধ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়। যথাসময়ে জরিমানা পরিশোধ করা না হলে পরবর্তীতে অধিকতর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও হুঁশিয়ার করা হয়।