ঢাকা ১১:১২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

অস্ত্র হাতে ভাইরাল যুবক গ্রেপ্তার

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০১:০০:০১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৬৩ বার পড়া হয়েছে

ছবি: সংগৃহীত

মাগুরা প্রতিনিধিঃ

মাগুরায় স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রলীগের মধ্যে দুই পক্ষের সংঘর্ষ চলাকালে আগ্নেয়াস্ত্র হাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভিডিও ও ছবি ছড়িয়ে পড়া অস্ত্রধারী সেই যুবক শাহীন খানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে মাগুরা সদর উপজেলার আলোদিয়া নবগঙ্গা ব্রিজ থেকে সদর থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

শাহিন মাগুরা শহরের স্টেডিয়াম পাড়ার লুৎফর রহমানের ছেলে এবং মাগুরা আদর্শ কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক।

জনা গেছে, গত বুধবার স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় তিন শতাধিক ব্যক্তিকে আসামি করে সদর থানায় মামলা করেন জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি বারিউল ইসলাম। মামলায় বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ভীতি সৃষ্টি ও হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাতের অভিযোগ আনা হয়েছে।

ওই মামলায় ১০৫ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা ১৫০ থেকে ২০০ জনকে আসামি করা হয়েছে। যার মধ্যে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রদলের শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা ছাড়াও বিএনপির নেতাকর্মীরা রয়েছেন। ওই মামলায় প্রথম আসামি হিসেবে শাহীন খানকে গ্রেপ্তার করার কথা জানিয়েছে পুলিশ।

সদর থানার ভারপ্র্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) আশরাফুল ইসলাম জানান, বর্তমানে শাহিনকে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তবে তার ব্যবহৃত আগ্নেযাস্ত্রটি এখনও উদ্ধার করা যায়নি। এ জন্য তাকে নিয়ে অভিযান পরিচালনা করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

অস্ত্র হাতে ভাইরাল যুবক গ্রেপ্তার

আপডেট সময় : ০১:০০:০১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩

মাগুরা প্রতিনিধিঃ

মাগুরায় স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রলীগের মধ্যে দুই পক্ষের সংঘর্ষ চলাকালে আগ্নেয়াস্ত্র হাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভিডিও ও ছবি ছড়িয়ে পড়া অস্ত্রধারী সেই যুবক শাহীন খানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার (৯ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে মাগুরা সদর উপজেলার আলোদিয়া নবগঙ্গা ব্রিজ থেকে সদর থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

শাহিন মাগুরা শহরের স্টেডিয়াম পাড়ার লুৎফর রহমানের ছেলে এবং মাগুরা আদর্শ কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক।

জনা গেছে, গত বুধবার স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় তিন শতাধিক ব্যক্তিকে আসামি করে সদর থানায় মামলা করেন জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি বারিউল ইসলাম। মামলায় বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ভীতি সৃষ্টি ও হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাতের অভিযোগ আনা হয়েছে।

ওই মামলায় ১০৫ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা ১৫০ থেকে ২০০ জনকে আসামি করা হয়েছে। যার মধ্যে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্রদলের শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা ছাড়াও বিএনপির নেতাকর্মীরা রয়েছেন। ওই মামলায় প্রথম আসামি হিসেবে শাহীন খানকে গ্রেপ্তার করার কথা জানিয়েছে পুলিশ।

সদর থানার ভারপ্র্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) আশরাফুল ইসলাম জানান, বর্তমানে শাহিনকে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তবে তার ব্যবহৃত আগ্নেযাস্ত্রটি এখনও উদ্ধার করা যায়নি। এ জন্য তাকে নিয়ে অভিযান পরিচালনা করা হবে।