ঢাকা ১২:০০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

ইটনার এলংজুড়ী বাজারে নগদ অর্থ সহ ৪০ হাজার টাকার মালামাল ডাকাতি

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১০:৩৫:৪২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ মে ২০২৩
  • / ৫০৯ বার পড়া হয়েছে

ফরহাদ আহমেদ
ইটনা, কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলার এলংজুড়ী ইউনিয়নের বাজারের জেঠিঘাঠ সংলগ্ন ১ নং গলির শরিফ জেনারেল ষ্টোরে  রাত ৩ টার সময়ে নগদ অর্থ সহ ৪০,০০০ হাজার টাকার মালামাল লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।

ভুক্তভোগী দোকান মালিক শরীফ মিয়া (২৬) জানান, আমি প্রতিদিনের মত দোকান বন্ধ করে বাড়ী যাই। আজও এর ব্যাতিকক্রম কিছু হইনি। আমি যখন সকাল ৮ ঘঠিকায় দোকান খুলতে যাই তখন আমার নজরে আসে, দেখতে পাই দোকানের পিছনের দরজা কে বা কারা শাবল,খন্তা, হাতুরী ও ইত্যাদি ডাকাতির সরঞ্জাম দিয়ে দোকানের দরজা ভেঙে দোকানে প্রবেশ করে নগদ অর্থ সহ ৪০, ০০০ হাজার টাকার মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়। আমি বিষয়টি স্থানীয় ভাবে, বাজার কমিটির সভাপতি জনাব রেনু হাজি(৬০) সহ সেক্রেটারি আবুল হাশেম( ৪৫) তাদের কাছে জানাই। তারা জানান, আমরা স্থানীয় ভাবে বাজারে বসে আলোচনার মাধ্যমে ডাকাতদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করব।

এ পর্যন্ত থানায় কোন ডায়েরী বা মামলা করা হয়নি বলে জানা যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ইটনার এলংজুড়ী বাজারে নগদ অর্থ সহ ৪০ হাজার টাকার মালামাল ডাকাতি

আপডেট সময় : ১০:৩৫:৪২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ মে ২০২৩

ফরহাদ আহমেদ
ইটনা, কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলার এলংজুড়ী ইউনিয়নের বাজারের জেঠিঘাঠ সংলগ্ন ১ নং গলির শরিফ জেনারেল ষ্টোরে  রাত ৩ টার সময়ে নগদ অর্থ সহ ৪০,০০০ হাজার টাকার মালামাল লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।

ভুক্তভোগী দোকান মালিক শরীফ মিয়া (২৬) জানান, আমি প্রতিদিনের মত দোকান বন্ধ করে বাড়ী যাই। আজও এর ব্যাতিকক্রম কিছু হইনি। আমি যখন সকাল ৮ ঘঠিকায় দোকান খুলতে যাই তখন আমার নজরে আসে, দেখতে পাই দোকানের পিছনের দরজা কে বা কারা শাবল,খন্তা, হাতুরী ও ইত্যাদি ডাকাতির সরঞ্জাম দিয়ে দোকানের দরজা ভেঙে দোকানে প্রবেশ করে নগদ অর্থ সহ ৪০, ০০০ হাজার টাকার মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়। আমি বিষয়টি স্থানীয় ভাবে, বাজার কমিটির সভাপতি জনাব রেনু হাজি(৬০) সহ সেক্রেটারি আবুল হাশেম( ৪৫) তাদের কাছে জানাই। তারা জানান, আমরা স্থানীয় ভাবে বাজারে বসে আলোচনার মাধ্যমে ডাকাতদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করব।

এ পর্যন্ত থানায় কোন ডায়েরী বা মামলা করা হয়নি বলে জানা যায়।