ঢাকা ০৪:৩৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঈদের ছুটি শেষে জীবিকার তাগিদে কর্মস্থলে ফিরছে বরিশালের মানুষ

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৭:৫৫:৩৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ জুলাই ২০২৩
  • / ৩৭৬ বার পড়া হয়েছে

মোঃ মশিউর রহমান সুমন, বরিশাল প্রতিনিধিঃ

পবিত্র ঈদুল আযহার ছুটি শেষ হয়েছে। আজ রবিবার থেকে খুলছে অফিস-আদালত। তবুও পরিবার পরিজনের সাথে ঈদ আনন্দ শেষে জীবিকার তাগিদে এখনো ঢাকায় ফিরছে মানুষ।

আজ রবিবার ভোর থেকে বরিশালের নথুল্লাবাদ, রুপাতলী বাসটার্মিনালসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলার বাসটার্মিনালগুলোতে দেখা গেছে ঢাকাগামী যাত্রীদের উপচেপড়া ভীর।পরিবহনের জন্য অপেক্ষমান যাত্রীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, বেশিরভাগই ঈদের ছুটি শেষে যোগদানের জন্য ঢাকার উদ্দেশ্য যাচ্ছেন।

নগরীর নথুল্লাবাদ বাসস্ট্যান্ডে অপেক্ষমান যাত্রী খোকন হাওলাদার বলেন, পদ্মা সেতুর সুফলের কারনে এখন সবোর্চ্চ তিন ঘন্টার মধ্যে ঢাকায় পৌঁছানো সম্ভব হবে।তাই সকাল পৌন ছয়টার দিকে বরিশাল থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হচ্ছি।তিনি আরো বলেন, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ঢাকায় গিয়ে তিনি সকালের নাস্তা খেয়ে অফিসে যাওয়া সম্ভব হবে।

হাসান সরদার নামের অপর যাত্রী বলেন, পদ্মা সেতুর সুফলের কারনে আগের মতো ফেরিঘাটে ঘন্টার পর ঘন্টা যাত্রীদের অপেক্ষা করতে হয়না।যে কারনে ভোরে রওয়ানা হয়ে অফিস করা সম্ভব হচ্ছে। তবে ঈদ উপলক্ষে বাসে কিছুটা বাড়তি ভাড়া নেওয়া বলে তিনি উল্লেখ করেন।

রবিবার (২জুলাই) সকাল থেকে বরিশাল নগরীর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে ঢাকাগামী যাত্রীদের উপস্থিতি ছিলো চোঁখে। ওইদিন সকাল থেকে কোন কোম্পানির বাস খালি যায়নি।যদিও বলা হচ্ছে, রবিবার ভোরে ঢাকাগামী বাসগুলোতে যাত্রীর চাপ বেশি হয়েছে। আর এক পদ্মা সেতুর কারনে বর্তমানে সড়কপথে যাত্রী চাঁপ সামাল দেওয়ার মতো সক্ষমতা তৈরি হয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিবহন মালিকরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ঈদের ছুটি শেষে জীবিকার তাগিদে কর্মস্থলে ফিরছে বরিশালের মানুষ

আপডেট সময় : ০৭:৫৫:৩৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ জুলাই ২০২৩

মোঃ মশিউর রহমান সুমন, বরিশাল প্রতিনিধিঃ

পবিত্র ঈদুল আযহার ছুটি শেষ হয়েছে। আজ রবিবার থেকে খুলছে অফিস-আদালত। তবুও পরিবার পরিজনের সাথে ঈদ আনন্দ শেষে জীবিকার তাগিদে এখনো ঢাকায় ফিরছে মানুষ।

আজ রবিবার ভোর থেকে বরিশালের নথুল্লাবাদ, রুপাতলী বাসটার্মিনালসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলার বাসটার্মিনালগুলোতে দেখা গেছে ঢাকাগামী যাত্রীদের উপচেপড়া ভীর।পরিবহনের জন্য অপেক্ষমান যাত্রীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, বেশিরভাগই ঈদের ছুটি শেষে যোগদানের জন্য ঢাকার উদ্দেশ্য যাচ্ছেন।

নগরীর নথুল্লাবাদ বাসস্ট্যান্ডে অপেক্ষমান যাত্রী খোকন হাওলাদার বলেন, পদ্মা সেতুর সুফলের কারনে এখন সবোর্চ্চ তিন ঘন্টার মধ্যে ঢাকায় পৌঁছানো সম্ভব হবে।তাই সকাল পৌন ছয়টার দিকে বরিশাল থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হচ্ছি।তিনি আরো বলেন, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ঢাকায় গিয়ে তিনি সকালের নাস্তা খেয়ে অফিসে যাওয়া সম্ভব হবে।

হাসান সরদার নামের অপর যাত্রী বলেন, পদ্মা সেতুর সুফলের কারনে আগের মতো ফেরিঘাটে ঘন্টার পর ঘন্টা যাত্রীদের অপেক্ষা করতে হয়না।যে কারনে ভোরে রওয়ানা হয়ে অফিস করা সম্ভব হচ্ছে। তবে ঈদ উপলক্ষে বাসে কিছুটা বাড়তি ভাড়া নেওয়া বলে তিনি উল্লেখ করেন।

রবিবার (২জুলাই) সকাল থেকে বরিশাল নগরীর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে ঢাকাগামী যাত্রীদের উপস্থিতি ছিলো চোঁখে। ওইদিন সকাল থেকে কোন কোম্পানির বাস খালি যায়নি।যদিও বলা হচ্ছে, রবিবার ভোরে ঢাকাগামী বাসগুলোতে যাত্রীর চাপ বেশি হয়েছে। আর এক পদ্মা সেতুর কারনে বর্তমানে সড়কপথে যাত্রী চাঁপ সামাল দেওয়ার মতো সক্ষমতা তৈরি হয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিবহন মালিকরা।