ঢাকা ০২:৪৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
পাঁচবিবিতে বুড়াবুড়ির মাজারে ২৫তম বাৎসরিক ওয়াজ মাহফিলের প্রস্তুতি সভা হিলি সীমান্তে দুই বাংলার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হরিপুরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত পাঁচবিবিতে নির্বাচনী মাঠে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোছাঃ রেবেকা সুলতানা বিরামপুরে সমতল ভূমিতে বসবাসরত ৩৫০ ক্ষুদ্র নৃ- গোষ্ঠীর মাঝে বিনামূল্যে মুরগি বিতরণ পাঁচবিবিতে আবু হোসাইন হত্যা মামলায় মা-ছেলেসহ ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড পাঁচবিবিতে বন্ধুত্বের মিলন মেলা-৯০ অনুষ্ঠিত হিলিতে দিনব্যাপি পণ্য প্রদর্শর্নী ও পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত পাঁচবিবিতে রেলওয়ের সম্পত্তি লীজকে কেন্দ্র করে সংবাদ সম্মেলন পাঁচবিবিতে বণিক সমিতির ৫ম সাধারণ সভায় আহবায়ক কমিটি ঘোষনা একাংশের আপত্তি

কয়রায় ডাক্তার সুজিত কুমার কে সংবর্ধনা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:২২:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ মে ২০২৩
  • / ৩৭০ বার পড়া হয়েছে

সালাউদ্দীন,কয়রা, প্রতিনিধিঃ

কয়রা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) অসহায় গরিব মানুষের ডাক্তার নামে পরিচিত ডাঃ সুজিত কুমার বৈদ্যের বিদায় উপলক্ষে সম্মাননা স্মারক প্রদান করেছে কয়রা সাংবাদিক ফোরাম।

রবিবার বিকালে উপজেলার সদরে সুন্দরবন বালিকা বিদ্যালয়ের হল রুমে ডাঃ সুজিত কুমার বৈদ্য কে সুন্দরবন উপকূলের কয়রা উপজেলার গরিব ও অসহায় মানুষের চিকিৎসা সেবার জন্য সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কয়রা সাংবাদিক ফোরামে প্রধান উপদেষ্টা,কয়রা উপজেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভাপতি মো.খায়রুল আলম। কয়রা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে কর্মরত অবস্থায় চিকিৎসাসেবা প্রদানের মাধ্যমে সুজিত কুমার বৈদ্য হয়ে ওঠেন গরিবের ডাক্তার। স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ডিউটির পরও রাত-বিরাতে রোগীর স্বজনদের ডাকে তিনি ছুটে যেতেন হাসপাতালে। বেসরকারি ক্লিনিকে গরিব-অসহায় রোগীদের বিনা পয়সায় দেখেছেন তিনি। পদোন্নতি পেয়ে ঢাকার জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠান (নিটোর) হাসপাতালে বদলি হয়েছেন ডাক্তার সুজিত কুমার।

বিদায় সংবর্ধনার মাধ্যমে সাংবাদিকদের এই ভালোবাসায় আবেগাপ্লুত হয়ে ডা.সুজিত কুমার বলেন, এই সংবর্ধনা আর ভালোবাসা আমার ডাক্তারি জীবনের সর্বোচ্চ অর্জন।এলাকার মানুষের জন্য আমি দিন রাত যে কোন সময় অসুস্থদের চিকিৎসায় ছুটে গিয়েছি।আমার সর্বোচ্চ দিয়ে কাজ করেছি,কাউকে কখনও ফিরিয়ে দেইনি।নিজের উপার্জিত বেতনের টাকাও অনেক সময় অসুস্থ রোগীদের ঔযুধ কিনতে সহযোগিতা করেছি। আমার অনেক সহকর্মী আছেন, তারা এমন সংবর্ধনা পেয়েছেন কি-না জানি না। এটি আমার জন্য অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে।কয়রা সাংবাদিক ফোরামের কাছে আমি চিরকৃতজ্ঞত।

কয়রা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি তারিক লিটু’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মো.গোলাম মোস্তফার সঞ্চলনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক মো. হাফিজুর রহমান মিস্ত্রী, উপজেলার ইমাম পরিষদ সাধারণ সম্পাদক মো.মাসুদুর রহমান,কয়রা মদিনাবাদ সরকারি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষিকা মেরিনা খাতুন,শিক্ষক রঞ্জিত কুমার মন্ডল,বরুন কুমার গাইন,অরুন কুমার মন্ডল,সাংবাদিক মো.মোক্তার হোসেন,জিয়াউর রহমান জিল্লুর,নাইম হাসান সুমন,সালাউদ্দিন প্রমুখ। পরে আলোচনা শেষে ডা. সুজিত কুমারকে সংবর্ধনা ক্রেস্ট তুলে দেন অতিথিরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

কয়রায় ডাক্তার সুজিত কুমার কে সংবর্ধনা

আপডেট সময় : ০৮:২২:৩৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ মে ২০২৩

সালাউদ্দীন,কয়রা, প্রতিনিধিঃ

কয়রা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) অসহায় গরিব মানুষের ডাক্তার নামে পরিচিত ডাঃ সুজিত কুমার বৈদ্যের বিদায় উপলক্ষে সম্মাননা স্মারক প্রদান করেছে কয়রা সাংবাদিক ফোরাম।

রবিবার বিকালে উপজেলার সদরে সুন্দরবন বালিকা বিদ্যালয়ের হল রুমে ডাঃ সুজিত কুমার বৈদ্য কে সুন্দরবন উপকূলের কয়রা উপজেলার গরিব ও অসহায় মানুষের চিকিৎসা সেবার জন্য সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কয়রা সাংবাদিক ফোরামে প্রধান উপদেষ্টা,কয়রা উপজেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভাপতি মো.খায়রুল আলম। কয়রা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে কর্মরত অবস্থায় চিকিৎসাসেবা প্রদানের মাধ্যমে সুজিত কুমার বৈদ্য হয়ে ওঠেন গরিবের ডাক্তার। স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ডিউটির পরও রাত-বিরাতে রোগীর স্বজনদের ডাকে তিনি ছুটে যেতেন হাসপাতালে। বেসরকারি ক্লিনিকে গরিব-অসহায় রোগীদের বিনা পয়সায় দেখেছেন তিনি। পদোন্নতি পেয়ে ঢাকার জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠান (নিটোর) হাসপাতালে বদলি হয়েছেন ডাক্তার সুজিত কুমার।

বিদায় সংবর্ধনার মাধ্যমে সাংবাদিকদের এই ভালোবাসায় আবেগাপ্লুত হয়ে ডা.সুজিত কুমার বলেন, এই সংবর্ধনা আর ভালোবাসা আমার ডাক্তারি জীবনের সর্বোচ্চ অর্জন।এলাকার মানুষের জন্য আমি দিন রাত যে কোন সময় অসুস্থদের চিকিৎসায় ছুটে গিয়েছি।আমার সর্বোচ্চ দিয়ে কাজ করেছি,কাউকে কখনও ফিরিয়ে দেইনি।নিজের উপার্জিত বেতনের টাকাও অনেক সময় অসুস্থ রোগীদের ঔযুধ কিনতে সহযোগিতা করেছি। আমার অনেক সহকর্মী আছেন, তারা এমন সংবর্ধনা পেয়েছেন কি-না জানি না। এটি আমার জন্য অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে।কয়রা সাংবাদিক ফোরামের কাছে আমি চিরকৃতজ্ঞত।

কয়রা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি তারিক লিটু’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মো.গোলাম মোস্তফার সঞ্চলনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক মো. হাফিজুর রহমান মিস্ত্রী, উপজেলার ইমাম পরিষদ সাধারণ সম্পাদক মো.মাসুদুর রহমান,কয়রা মদিনাবাদ সরকারি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষিকা মেরিনা খাতুন,শিক্ষক রঞ্জিত কুমার মন্ডল,বরুন কুমার গাইন,অরুন কুমার মন্ডল,সাংবাদিক মো.মোক্তার হোসেন,জিয়াউর রহমান জিল্লুর,নাইম হাসান সুমন,সালাউদ্দিন প্রমুখ। পরে আলোচনা শেষে ডা. সুজিত কুমারকে সংবর্ধনা ক্রেস্ট তুলে দেন অতিথিরা।