ঢাকা ০৩:২০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খানাখন্দে ভরা হিলি স্থলবন্দরের প্রধাণ সড়ক পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক শাকিল আহমেদ

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৭:২৯:০৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুলাই ২০২৩
  • / ৮৩২ বার পড়া হয়েছে

 

হাকিমপুর (হিলি) প্রতিনিধি

খানাখন্দে ভরা হিলি স্থলবন্দরের প্রধাণ সড়ক পরিদর্শন করেছেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসক শাকিল আহমেদ। শনিবার দুপুরে তিনি দিনাজপুর থেকে হিলি স্থলবন্দরে এসে পৌছান। এসময় হাকিমপুর উপজেলা চেয়াম্যান হারুন উর রশিদ ও পৌর মেয়র জামিল হোসেন চলন্ত ,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনুর রেজা শাহীন তাকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকরর্তা, সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকোৗশলি, আমদানি-রফতানিকারক ব্যবসায়ী, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাসহ স্থানীয়রা উপস্থিত ছিলেন।
পরে জেলা প্রশাসক হিলি স্থালবন্দরের খানাখন্দে ভরা প্রধান সড়কটি পায়ে হেটে পরিদর্শন করেন। এসময় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ী নেতা ও মুক্তিযোদ্ধারা জেলা প্রশাসককে সড়কের বিভিন্ন সমস্যার কথা জেলা প্রশাসকের কাছে তুলে ধরেন।
জেলা প্রশাসক সাংবাদিকদের বলেন, গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি মেরামতের কাজ অতি দ্রুত শেষ করা হবে। বৃষ্টির কারণে সড়কে যেসমস্ত গর্তের সৃষ্টি হয়েছে তা মেরামতের কাজ ইতোমধ্যে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান শুরু হয়েছে। বন্দরের আমদানি-রফতানি গতিশীল রাখতে সব ধরণের ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

খানাখন্দে ভরা হিলি স্থলবন্দরের প্রধাণ সড়ক পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক শাকিল আহমেদ

আপডেট সময় : ০৭:২৯:০৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুলাই ২০২৩

 

হাকিমপুর (হিলি) প্রতিনিধি

খানাখন্দে ভরা হিলি স্থলবন্দরের প্রধাণ সড়ক পরিদর্শন করেছেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসক শাকিল আহমেদ। শনিবার দুপুরে তিনি দিনাজপুর থেকে হিলি স্থলবন্দরে এসে পৌছান। এসময় হাকিমপুর উপজেলা চেয়াম্যান হারুন উর রশিদ ও পৌর মেয়র জামিল হোসেন চলন্ত ,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনুর রেজা শাহীন তাকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকরর্তা, সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকোৗশলি, আমদানি-রফতানিকারক ব্যবসায়ী, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাসহ স্থানীয়রা উপস্থিত ছিলেন।
পরে জেলা প্রশাসক হিলি স্থালবন্দরের খানাখন্দে ভরা প্রধান সড়কটি পায়ে হেটে পরিদর্শন করেন। এসময় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ী নেতা ও মুক্তিযোদ্ধারা জেলা প্রশাসককে সড়কের বিভিন্ন সমস্যার কথা জেলা প্রশাসকের কাছে তুলে ধরেন।
জেলা প্রশাসক সাংবাদিকদের বলেন, গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি মেরামতের কাজ অতি দ্রুত শেষ করা হবে। বৃষ্টির কারণে সড়কে যেসমস্ত গর্তের সৃষ্টি হয়েছে তা মেরামতের কাজ ইতোমধ্যে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান শুরু হয়েছে। বন্দরের আমদানি-রফতানি গতিশীল রাখতে সব ধরণের ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।