ঢাকা ১১:৪৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

তালতলীতে জোর পূর্বক ঘর তুলে জমি দখলে থানায় অভিযোগ

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৫:৩৪:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ মে ২০২৩
  • / ৩৩৯ বার পড়া হয়েছে

মোঃনাজমুল হোসেন বিজয় ,বরগুনাঃ

বরগুনার তালতলীতে জোরজবরে রাতারাতি ঘর তুলে বসতবাড়ীর জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার তালতলী প্রেসক্লাবে এসে লিখিত অভিযোগ করেন উপজেলার পশ্চিম অংকুজানপাড়া এলাকার কুদ্দুস মিয়া। এ অভিযোগের আগে তিনি তালতলী থানায় মামলা করতে এসে লিখিত অভিযোগ করেছেন বলে জানান।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, উপজেলার কুদ্দুস মিয়া প্রায় ২যুগ আগে ৪১ নং ছোট নিশানবাড়ীয়া মৌজার এসএ ৭৭ ও ২৬২ নং খতিয়ানে ২একর ৯২শতাংশ জমি ক্রয় করে আধাপাকা বশতঘর তুলে বসবাস করে আসছে। বাড়ীর পূর্ব পাশের কিছু জমিতে লেক কেটে মৎস্য চাষ করেন কুদ্দুস। মহিষ হারানো যাওয়ায় খোজাখুজি করতে কুদ্দুস এলাকার বাইরে থাকার সুবাদে স্থানীয় প্রভাবশালী দেলোয়ার হাওলাদার ও হালিম হাওলাদার কিছু লোকের কু-পরামর্শে বেসরকারী সার্ভেয়ার ছোহরাফ ফরাজীকে এনে কুদ্দুসের দখলকৃত সেই লেক কাটা বাড়ীর পাশের জমিতে রাতারাতি ঘর তুলে জালের বেড়া দিয়ে দখলে নেন।

এ ব্যাপারে স্থানীয় বেসরকারী সার্ভেয়ার ছোহরাফ ফরাজী জানান, জমি মাপা হয়েছে তবে ওখানে দেলোয়ার ও হালিমের কোন জমি নেই এবং তাদেরকে কোন জমি বুঝিয়ে দেয়া হয়নাই।

তালতলী থানার অফিসার ইনচার্জ কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু জানান, কুদ্দুসের জমিজমা সংক্রান্ত অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরেজমিনে তদন্ত করে সমাধানের চেষ্টা করবো।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

তালতলীতে জোর পূর্বক ঘর তুলে জমি দখলে থানায় অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৫:৩৪:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ মে ২০২৩

মোঃনাজমুল হোসেন বিজয় ,বরগুনাঃ

বরগুনার তালতলীতে জোরজবরে রাতারাতি ঘর তুলে বসতবাড়ীর জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার তালতলী প্রেসক্লাবে এসে লিখিত অভিযোগ করেন উপজেলার পশ্চিম অংকুজানপাড়া এলাকার কুদ্দুস মিয়া। এ অভিযোগের আগে তিনি তালতলী থানায় মামলা করতে এসে লিখিত অভিযোগ করেছেন বলে জানান।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, উপজেলার কুদ্দুস মিয়া প্রায় ২যুগ আগে ৪১ নং ছোট নিশানবাড়ীয়া মৌজার এসএ ৭৭ ও ২৬২ নং খতিয়ানে ২একর ৯২শতাংশ জমি ক্রয় করে আধাপাকা বশতঘর তুলে বসবাস করে আসছে। বাড়ীর পূর্ব পাশের কিছু জমিতে লেক কেটে মৎস্য চাষ করেন কুদ্দুস। মহিষ হারানো যাওয়ায় খোজাখুজি করতে কুদ্দুস এলাকার বাইরে থাকার সুবাদে স্থানীয় প্রভাবশালী দেলোয়ার হাওলাদার ও হালিম হাওলাদার কিছু লোকের কু-পরামর্শে বেসরকারী সার্ভেয়ার ছোহরাফ ফরাজীকে এনে কুদ্দুসের দখলকৃত সেই লেক কাটা বাড়ীর পাশের জমিতে রাতারাতি ঘর তুলে জালের বেড়া দিয়ে দখলে নেন।

এ ব্যাপারে স্থানীয় বেসরকারী সার্ভেয়ার ছোহরাফ ফরাজী জানান, জমি মাপা হয়েছে তবে ওখানে দেলোয়ার ও হালিমের কোন জমি নেই এবং তাদেরকে কোন জমি বুঝিয়ে দেয়া হয়নাই।

তালতলী থানার অফিসার ইনচার্জ কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু জানান, কুদ্দুসের জমিজমা সংক্রান্ত অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরেজমিনে তদন্ত করে সমাধানের চেষ্টা করবো।