ঢাকা ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দেশ এখন মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে : মির্জা ফখরুল

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:৫১:১৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪
  • / ৩২২ বার পড়া হয়েছে

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশটা এখন মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে। ৭ জানুয়ারি ডামি নির্বাচনের মাধ্যমে রাষ্ট্রক্ষমতা দখলকারী আওয়ামী শাসকগোষ্ঠী অবৈধ ক্ষমতা ধরে রাখতে দেশব্যাপী প্রতিদিনই বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের ওপর নানা কায়দায় অবর্ণনীয় নির্যাতন-নিপীড়ণ করছে।

রোববার (১৯ মে) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব এসব কথা বলেন।

পল্টন থানার একটি মামলায় বিএনপির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক কমিটির সদস্য ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির জেষ্ঠ্য সদস্য ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেনের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে এই বিবৃতি দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মির্জা ফখরুল বলেন, এ ধরণের অপকর্মের একমাত্র উদ্দেশ্যই হচ্ছে দেশের বিরোধী দলগুলো যেন দখলদার সরকারের স্বৈরাচারী আচরণের সমালোচনা করতে না পারে। মিথ্যা মামলায় বিএনপি নেতা-কর্মীদেরকে জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠানো ফ্যাসিষ্ট আওয়ামী সরকারের প্রধান কর্মসূচি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ফখরুল বলেন, ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেনের জামিন নামঞ্জুর করেকারাগারে পাঠানো সেই কর্মসূচিরই নিরবচ্ছিন্ন অংশ। এ ধরণের অমানবিক ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি। অবিলম্বে ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেনের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত বানোয়াট ও রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক মামলা প্রত্যাহারসহ তার নি:শর্ত মুক্তির জোর আহবান জানাচ্ছি।

অপরদিকে, ইশরাক হোসেনের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর ঘটনায় বিবৃতি দিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম ও সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু।

বিবৃতিতে নেতারা বলেন, আওয়ামী অবৈধ সরকার দেশে ভয়াবহ দুঃশাসনের আরও একটি ঘৃন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো। সরকারের পায়ের তলা থেকে মাটি সরে গেছে। তাই জনসমর্থনহীন এই ফ্যাসিষ্ট ও দখলদার সরকার হিতাহিত বিবেচনাহীন হয়ে পড়েছে। বিএনপি নেতা-কর্মীদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো দুঃশাসনকে টিকিয়ে রাখারই ইঙ্গিত। মামলা প্রত্যাহারসহ ইশরাকের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির জোর আহবান জানান তারা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

দেশ এখন মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে : মির্জা ফখরুল

আপডেট সময় : ০৯:৫১:১৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশটা এখন মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে। ৭ জানুয়ারি ডামি নির্বাচনের মাধ্যমে রাষ্ট্রক্ষমতা দখলকারী আওয়ামী শাসকগোষ্ঠী অবৈধ ক্ষমতা ধরে রাখতে দেশব্যাপী প্রতিদিনই বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের ওপর নানা কায়দায় অবর্ণনীয় নির্যাতন-নিপীড়ণ করছে।

রোববার (১৯ মে) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব এসব কথা বলেন।

পল্টন থানার একটি মামলায় বিএনপির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক কমিটির সদস্য ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির জেষ্ঠ্য সদস্য ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেনের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে এই বিবৃতি দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মির্জা ফখরুল বলেন, এ ধরণের অপকর্মের একমাত্র উদ্দেশ্যই হচ্ছে দেশের বিরোধী দলগুলো যেন দখলদার সরকারের স্বৈরাচারী আচরণের সমালোচনা করতে না পারে। মিথ্যা মামলায় বিএনপি নেতা-কর্মীদেরকে জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠানো ফ্যাসিষ্ট আওয়ামী সরকারের প্রধান কর্মসূচি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ফখরুল বলেন, ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেনের জামিন নামঞ্জুর করেকারাগারে পাঠানো সেই কর্মসূচিরই নিরবচ্ছিন্ন অংশ। এ ধরণের অমানবিক ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি। অবিলম্বে ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেনের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত বানোয়াট ও রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক মামলা প্রত্যাহারসহ তার নি:শর্ত মুক্তির জোর আহবান জানাচ্ছি।

অপরদিকে, ইশরাক হোসেনের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর ঘটনায় বিবৃতি দিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম ও সদস্য সচিব রফিকুল আলম মজনু।

বিবৃতিতে নেতারা বলেন, আওয়ামী অবৈধ সরকার দেশে ভয়াবহ দুঃশাসনের আরও একটি ঘৃন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো। সরকারের পায়ের তলা থেকে মাটি সরে গেছে। তাই জনসমর্থনহীন এই ফ্যাসিষ্ট ও দখলদার সরকার হিতাহিত বিবেচনাহীন হয়ে পড়েছে। বিএনপি নেতা-কর্মীদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো দুঃশাসনকে টিকিয়ে রাখারই ইঙ্গিত। মামলা প্রত্যাহারসহ ইশরাকের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির জোর আহবান জানান তারা।