ঢাকা ০৬:২৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

নৌকা ডোবাতে হাতপাখাকে ৩ কোটি টাকা দেওয়ার অভিযোগ

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১০:২৪:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৫ জুন ২০২৩
  • / ৩৫৪ বার পড়া হয়েছে

মোঃ মশিউর রহমান, বরিশাল (মেহেন্দীগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ

বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বর্তমান মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহর বিরুদ্ধে নৌকাকে হারাতে ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থীকে ৩ কোটি টাকা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ ও তার ছেলে সাদিক আবদুল্লাহর বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেছেন ২৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী এবং জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য শরীফ আনিসুর রহমান। তিনি এক সাংবাদিক সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন। এবারের নির্বাচনে নৌকার মনোনয়র থেকে বাদ পড়ার পর আপন চাচা খোকন সেরনিয়াবাত মনোনয়ন পাওয়ায় সাদিক ক্ষোভ থেকে এমনটি করেছেন বলে ধারনা করা হচ্ছে।
আনিসুর রহমান বলেন, নৌকার মনোনয়ন থেকে বাদ পড়ায় সাদিক আবদুল্লাহ ও তার পিতা হাসানাত আবদুল্লা ঢাকায় ডেকে নিয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাতপাখার প্রার্থী মুফতি সৈয়দ ফয়জুল করিমকে তিন কোটি টাকা দিয়েছেন।যাতে শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থী খোকন সেরনিয়াবাত পরাজিত হন। আর খোকন সেরনিয়াবাত পরাজিত হলে সাদিক আবদুল্লাহ পুনরায় বরিশালে এসে অপকর্ম নির্বিঘ্নে করতে পারবে বলে চিন্তা করছে।
সাদিক আবদুল্লাহর আমলে নির্যাতিত ১০ কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে ৩জন করে প্রার্থী দাঁড় করানো হয়েছে। যাদের ইতিমধ্যে ৩০লাখ টাকা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন আনিসুর রহমান।
এদিকে গণমাধ্যমে এমন বক্তব্য দেওয়ার পর বরিশাল জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগ থেকে আনুষ্ঠানিক বক্তব্য না পাওয়া গেলেও রাতেই আওয়ামীলীগের এ দুই ইউনিটের সদস্য আনিসুর রহমানকে মিথ্যা প্রচার ও সংগঠন বিরোধী কাজ করায় সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।
বিষয়টি জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক তালুকদার ইউনুছ ও মহানগর আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক হেমায়েত উদ্দিন সেরনিয়াবাত নিশ্চিত করেছেন।
এ বিষয়ে মন্তব্য জানতে সাদিক আবদুল্লাহর সাথে মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। এজন্য তার মন্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। হাতপাখা প্রার্থী সৈয়দ ফয়জুল করিম বলেন, এটি ষড়যন্ত্রের ফাঁদ হতে পারে। এ ফাঁদে আমরা পা দেবোনা বলে মন্তব্য করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

নৌকা ডোবাতে হাতপাখাকে ৩ কোটি টাকা দেওয়ার অভিযোগ

আপডেট সময় : ১০:২৪:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৫ জুন ২০২৩

মোঃ মশিউর রহমান, বরিশাল (মেহেন্দীগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ

বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বর্তমান মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহর বিরুদ্ধে নৌকাকে হারাতে ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থীকে ৩ কোটি টাকা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ ও তার ছেলে সাদিক আবদুল্লাহর বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেছেন ২৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী এবং জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য শরীফ আনিসুর রহমান। তিনি এক সাংবাদিক সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন। এবারের নির্বাচনে নৌকার মনোনয়র থেকে বাদ পড়ার পর আপন চাচা খোকন সেরনিয়াবাত মনোনয়ন পাওয়ায় সাদিক ক্ষোভ থেকে এমনটি করেছেন বলে ধারনা করা হচ্ছে।
আনিসুর রহমান বলেন, নৌকার মনোনয়ন থেকে বাদ পড়ায় সাদিক আবদুল্লাহ ও তার পিতা হাসানাত আবদুল্লা ঢাকায় ডেকে নিয়ে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাতপাখার প্রার্থী মুফতি সৈয়দ ফয়জুল করিমকে তিন কোটি টাকা দিয়েছেন।যাতে শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থী খোকন সেরনিয়াবাত পরাজিত হন। আর খোকন সেরনিয়াবাত পরাজিত হলে সাদিক আবদুল্লাহ পুনরায় বরিশালে এসে অপকর্ম নির্বিঘ্নে করতে পারবে বলে চিন্তা করছে।
সাদিক আবদুল্লাহর আমলে নির্যাতিত ১০ কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে ৩জন করে প্রার্থী দাঁড় করানো হয়েছে। যাদের ইতিমধ্যে ৩০লাখ টাকা দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন আনিসুর রহমান।
এদিকে গণমাধ্যমে এমন বক্তব্য দেওয়ার পর বরিশাল জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগ থেকে আনুষ্ঠানিক বক্তব্য না পাওয়া গেলেও রাতেই আওয়ামীলীগের এ দুই ইউনিটের সদস্য আনিসুর রহমানকে মিথ্যা প্রচার ও সংগঠন বিরোধী কাজ করায় সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।
বিষয়টি জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক তালুকদার ইউনুছ ও মহানগর আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক হেমায়েত উদ্দিন সেরনিয়াবাত নিশ্চিত করেছেন।
এ বিষয়ে মন্তব্য জানতে সাদিক আবদুল্লাহর সাথে মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। এজন্য তার মন্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। হাতপাখা প্রার্থী সৈয়দ ফয়জুল করিম বলেন, এটি ষড়যন্ত্রের ফাঁদ হতে পারে। এ ফাঁদে আমরা পা দেবোনা বলে মন্তব্য করেন।