ঢাকা ১২:০০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
হিলিতে আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের ২১ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন বিরামপুরে ধান, চাল ও গম ক্রয়ের শুভ উদ্বোধন করেন শিবলী সাদিক এমপি হোটেলে খেতে গিয়ে দায়িত্ব হারালেন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা পাঁচবিবিতে খরায় লিচুর ফলন হ্রাস,বাগান মালিকের মাথায় হাত পাঁচবিবিতে ট্রাইকো কম্পোস্ট সার বাজারজাতকরণে মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত আত্মসমর্পণের পর কারাগারে বিএনপি নেতা ইশরাক দুর্ঘটনার কবলে ইরানের প্রেসিডেন্টকে বহনকারী হেলিকপ্টার অবৈধ জুস তৈরির কারখানায় অভিযান, ১০ লাখ টাকা জরিমানা দেশ এখন মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে : মির্জা ফখরুল ‘ভারত-চীনকে যুক্ত করতে পারলেই রোহিঙ্গা সংকট সমাধান সম্ভব’

পাঁচবিবিতে প্রাননাশের হুমকির প্রতিবাদে কৃষকের সংবাদ সম্মেলন

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৭:৪৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৮ জুন ২০২৩
  • / ৪৩০ বার পড়া হয়েছে

দবিরুল ইসলাম, পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি:

জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে বাড়ির পানি চলাচলের ড্রেন বন্ধ করে জোরপূর্বক ব্যক্তিগত জায়গা ব্যবহার ও প্রাননাশের হুমকির প্রতিবাদে আজ ১৮ জুন রবিবার বিকেলে উপজেলার ভাল্লুকগাড়ি গ্রামের নিজ বাড়িতে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন ভুক্তভোগী কৃষক মৃত আফতাব উদ্দিনের পুত্র মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন।
উক্ত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, দীর্ঘদিন থেকে আমার বাড়ির পাশ দিয়ে পরিবারের ব্যবহারের পানি প্রবাহের ড্রেন ছিল। প্রতিবেশী একই গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের পুত্র মুনিরুজ্জামান বাবুসহ ৮-১০ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল আমার জায়গা জোরপূর্বক ব্যবহার করতে আমার বসতবাড়ির উঠানে গর্ত করে সেই মাটি দিয়ে আমার বাড়ির কলের পানি প্রাবাহের ড্রেনটি বন্ধ করে দিয়েছে। এ বিষয়ে তাদের সঙ্গে কোন কথা বলতে গেলেই তারা আমার সঙ্গে মারমুখী আচরণ করছে এবং জানমালের ক্ষয়ক্ষতিসহ প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। গত অক্টোবর ২০২২ থেকে আমার বাড়ির সামনে চলাচলের রাস্তাটি একটি পক্ষ শক্ত বাঁশের বেড়া দিয়ে মে মাস ২০২৩ পর্যন্ত আটক করে রেখেছিলেন। এই বেড়ার ঘেরার মধ্যে বন্দি থাকা অবস্থায় আমার মমতাময়ী মা মারা গিয়েছে। এরপর মে মাসে বাঁশের ঘেরা খোলার পরেই আমার ওপর তারা বিভিন্ন ভাবে মারমুখী আচরণ শুরু করেছে। আমার সঙ্গে অন্যায় আচরণের প্রতিবাদ করায় স্থানীয় মৃত আজিজারের পুত্র মাজেদুল এর বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালিয়ে মাজেদুলকে হত্যার উদ্দেশে মারপিট করতে থাকে। তাদের মারপিটে মাজেদুলসহ ৩জন গুরুতর আহত হয়। তাদেরকে থানা পুলিশ উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে দিয়েছিল। আহতদেরকে দেখার জন্য হাসপাতালে গেলে একটি কুচক্রিমহল আমার বড় ভাই মতিয়ারকে জোর পূর্বক উঠিয়ে নিয়ে গিয়ে ৬ ঘন্টা আটক রাখে। পরে কিছু অর্থের বিনিময়ে তাকে আমরা উদ্ধার করতে সক্ষম হই। এরপর থেকে আমার ওপর নানা প্রকার অত্যাচার শুরু করেছে। তাদের অত্যাচারের অংশ হিসেবে বাড়ির পানির ড্রেন বন্ধ করে দিয়ে জোরপূর্বক ৮ফিট রাস্তা দাবি করছে এবং আমাকে মারপিটসহ জানমালের ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। আজ আমি এই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আমার সঙ্গে ঘটে যাওয়া ধারাবাহিক অন্যায় আচরণের বিচার দাবি করছি। এ ব্যাপারে প্রতিপক্ষ বাবুর সাথে কথা বললে তিনি তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা দাবি করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

পাঁচবিবিতে প্রাননাশের হুমকির প্রতিবাদে কৃষকের সংবাদ সম্মেলন

আপডেট সময় : ০৯:৫৭:৪৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৮ জুন ২০২৩

দবিরুল ইসলাম, পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি:

জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে বাড়ির পানি চলাচলের ড্রেন বন্ধ করে জোরপূর্বক ব্যক্তিগত জায়গা ব্যবহার ও প্রাননাশের হুমকির প্রতিবাদে আজ ১৮ জুন রবিবার বিকেলে উপজেলার ভাল্লুকগাড়ি গ্রামের নিজ বাড়িতে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন ভুক্তভোগী কৃষক মৃত আফতাব উদ্দিনের পুত্র মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন।
উক্ত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, দীর্ঘদিন থেকে আমার বাড়ির পাশ দিয়ে পরিবারের ব্যবহারের পানি প্রবাহের ড্রেন ছিল। প্রতিবেশী একই গ্রামের মৃত আবুল কাশেমের পুত্র মুনিরুজ্জামান বাবুসহ ৮-১০ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল আমার জায়গা জোরপূর্বক ব্যবহার করতে আমার বসতবাড়ির উঠানে গর্ত করে সেই মাটি দিয়ে আমার বাড়ির কলের পানি প্রাবাহের ড্রেনটি বন্ধ করে দিয়েছে। এ বিষয়ে তাদের সঙ্গে কোন কথা বলতে গেলেই তারা আমার সঙ্গে মারমুখী আচরণ করছে এবং জানমালের ক্ষয়ক্ষতিসহ প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। গত অক্টোবর ২০২২ থেকে আমার বাড়ির সামনে চলাচলের রাস্তাটি একটি পক্ষ শক্ত বাঁশের বেড়া দিয়ে মে মাস ২০২৩ পর্যন্ত আটক করে রেখেছিলেন। এই বেড়ার ঘেরার মধ্যে বন্দি থাকা অবস্থায় আমার মমতাময়ী মা মারা গিয়েছে। এরপর মে মাসে বাঁশের ঘেরা খোলার পরেই আমার ওপর তারা বিভিন্ন ভাবে মারমুখী আচরণ শুরু করেছে। আমার সঙ্গে অন্যায় আচরণের প্রতিবাদ করায় স্থানীয় মৃত আজিজারের পুত্র মাজেদুল এর বাড়িতে অতর্কিত হামলা চালিয়ে মাজেদুলকে হত্যার উদ্দেশে মারপিট করতে থাকে। তাদের মারপিটে মাজেদুলসহ ৩জন গুরুতর আহত হয়। তাদেরকে থানা পুলিশ উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে দিয়েছিল। আহতদেরকে দেখার জন্য হাসপাতালে গেলে একটি কুচক্রিমহল আমার বড় ভাই মতিয়ারকে জোর পূর্বক উঠিয়ে নিয়ে গিয়ে ৬ ঘন্টা আটক রাখে। পরে কিছু অর্থের বিনিময়ে তাকে আমরা উদ্ধার করতে সক্ষম হই। এরপর থেকে আমার ওপর নানা প্রকার অত্যাচার শুরু করেছে। তাদের অত্যাচারের অংশ হিসেবে বাড়ির পানির ড্রেন বন্ধ করে দিয়ে জোরপূর্বক ৮ফিট রাস্তা দাবি করছে এবং আমাকে মারপিটসহ জানমালের ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। আজ আমি এই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আমার সঙ্গে ঘটে যাওয়া ধারাবাহিক অন্যায় আচরণের বিচার দাবি করছি। এ ব্যাপারে প্রতিপক্ষ বাবুর সাথে কথা বললে তিনি তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা দাবি করেন।