ঢাকা ০৫:৪০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বয়স্কভাতার নামে চাঁদাবাজী; বৃদ্ধকে মারধর

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০১:৫৪:১২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ মে ২০২৩
  • / ৫২৫ বার পড়া হয়েছে

সায়েদুজ্জামান, মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ

বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দিবে এরকম কথা বলে টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ইউপি সদস্যের নামে৷ ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলার দুল্লা ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটেছে৷

বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দিবে বলে ঐ এলাকার রামাকানা গ্রামের মোঃ শামছুল হক নামের এক বৃদ্ধের কাছ থেকে ২৫০০ টাকা নেয় ২ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আঃ হান্নান। দীর্ঘদিন পার হলেও কার্ড করার কোনো অবস্থা না দেখে ইউপি সদস্য আঃ হান্নানের কাছে টাকা ফেরত চান। টাকা ফেরত চাইলে নিজের ছেলেসহ বৃদ্ধ শামছুলকে কিল ঘুষিসহ আরো বিভিন্নভাবে আঘাত করেন।

প্রত্যক্ষদর্শরী জানান, আঃ হান্নান মেম্বার ২১শে মে সন্ধ্যায় চায়ের দোকানে শামছুল হককে মারধর করে পরে স্থানীয় লোকজন সেখান থেকে বৃদ্ধকে উদ্ধার করে। লোকজন আরো বলে, আরো অনেক মানুষের কাছ থেকে কার্ড করার নাম করে টাকা হাতিয়ে নেয় এই হান্নান মেম্বার ।

ভুক্তভোগী শামছুল হক বলেন, আমার কাছ থেকে টাকা নিয়ে কার্ড করে দেয়না, আমি টাকা ফেরত চাওয়াতে আমাকে মারধর করেছে, আমি এর সঠিক বিচার চাই।

এ ব্যাপারে দুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বলেন, হান্নান মেম্বার একটু উগ্র মেজাজের তার উগ্র কর্মকান্ডের আমি তাকে ২-৩ বার পরিষদ থেকে বের করে দিয়েছি আমার কিছু বলার নেই, উপর মহল যে সিদ্ধান্ত নিবে তার ব্যাপারে আমি সেই সিদ্ধান্ত কে সাধুবাদ জানাবো।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বয়স্কভাতার নামে চাঁদাবাজী; বৃদ্ধকে মারধর

আপডেট সময় : ০১:৫৪:১২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ মে ২০২৩

সায়েদুজ্জামান, মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ

বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দিবে এরকম কথা বলে টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ইউপি সদস্যের নামে৷ ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলার দুল্লা ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটেছে৷

বয়স্ক ভাতার কার্ড করে দিবে বলে ঐ এলাকার রামাকানা গ্রামের মোঃ শামছুল হক নামের এক বৃদ্ধের কাছ থেকে ২৫০০ টাকা নেয় ২ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আঃ হান্নান। দীর্ঘদিন পার হলেও কার্ড করার কোনো অবস্থা না দেখে ইউপি সদস্য আঃ হান্নানের কাছে টাকা ফেরত চান। টাকা ফেরত চাইলে নিজের ছেলেসহ বৃদ্ধ শামছুলকে কিল ঘুষিসহ আরো বিভিন্নভাবে আঘাত করেন।

প্রত্যক্ষদর্শরী জানান, আঃ হান্নান মেম্বার ২১শে মে সন্ধ্যায় চায়ের দোকানে শামছুল হককে মারধর করে পরে স্থানীয় লোকজন সেখান থেকে বৃদ্ধকে উদ্ধার করে। লোকজন আরো বলে, আরো অনেক মানুষের কাছ থেকে কার্ড করার নাম করে টাকা হাতিয়ে নেয় এই হান্নান মেম্বার ।

ভুক্তভোগী শামছুল হক বলেন, আমার কাছ থেকে টাকা নিয়ে কার্ড করে দেয়না, আমি টাকা ফেরত চাওয়াতে আমাকে মারধর করেছে, আমি এর সঠিক বিচার চাই।

এ ব্যাপারে দুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বলেন, হান্নান মেম্বার একটু উগ্র মেজাজের তার উগ্র কর্মকান্ডের আমি তাকে ২-৩ বার পরিষদ থেকে বের করে দিয়েছি আমার কিছু বলার নেই, উপর মহল যে সিদ্ধান্ত নিবে তার ব্যাপারে আমি সেই সিদ্ধান্ত কে সাধুবাদ জানাবো।