ঢাকা ০৩:৪১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
হিলি বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ বিরামপুর উপজেলায় ১০৩ বছরের বৃদ্ধা স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র নিলেন নাতি বৌয়ের কাঁধে ভর করে কিশোর কিশোরীর উজ্জ্বল ভবিষ্যত ও আলোকিত জীবন হিলিতে চেয়ারম্যান কাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট এর উদ্বোধন জয়পুরহাটে পুলিশ সুপার ম্যারাথন ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত পাঁচবিবিতে কোকতারা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে জানালার গ্রিল ভেঙ্গে দুধর্ষ চুরি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাক্টর দূর্ঘটনায় নিহত ২ পাঁচবিবিতে বুড়াবুড়ির মাজারে ২৫তম বাৎসরিক ওয়াজ মাহফিলের প্রস্তুতি সভা হিলি সীমান্তে দুই বাংলার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হরিপুরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

বরগুনার তালতলীতে মুক্তা চাষে সফল হতে চায় আরজান

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৬:১৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৪২ বার পড়া হয়েছে

 

মোঃ ইমরান হোসেন, বরগুনা প্রতিনিধিঃ

আমতলী: বরগুনা আমতলীতে চাওড়া ইউনিয়নের উঃ ঘটখালী গ্রামে মুক্তা চাষ করে সাফল্যের স্বপ্ন দেখছেন মোঃ আরজান মোল্লা। ৩ হাজার ৩ শত ঝিনুকে মুক্ত চাষ করে সকল খরচ বাদ দিয়ে ২৪ লাখ টাকা লাভের স্বপ্ন দেখছেন। মুক্তা একটি লাভ জনক চাষ। গহনা হিসেবে বিশ্বে মুক্তার কদর রয়েছে। মাছ চাষের সাথে সাথেও মুক্তা চাষ করা যায় এটির জন্য প্রয়োজন হয় না অতিরিক্ত কোন জায়গা।

মুক্তা চাষী মোঃ আরজান মোল্লা বলেন, ২০২১ সালের ইউটিউবের ভিডিও দেখে মুক্তা চাষের প্রতি আগ্রহ জাগে। তারপর আমি ৪ দিনের প্রশিক্ষণ নিয়ে আসি আমতলী ও বরিশাল থেকে। প্রথমবারে আমি পরীক্ষামূলকভাবে দেশীয় প্রজাতির মাছ এবং শামুক সংরক্ষণ ও উন্নয়ন প্রকল্প গোপালগঞ্জ এর আওতায় ২০২১/২০২২ অর্থ বছরে আমতলী উপজেলা সিনিয়র মৎস্য অফিস কর্তৃক সহযোগিতা ৩০০০ ঝিনুকে মুক্তা চাষ করি। পরবর্তিতে ৩০০ পিস ঝিনুক ব্যাক্তিগত ভাবে চাষ করি। প্রতি ঝিনুকে আমার খরচ হতো ৪০ থেকে ৫০ টাকা।

তিনি আরো বলেন, আগামী অক্টোবর থেকে বাণিজ্যিকভাবে মুক্তা রফতানি করা যাবে। এরই মধ্যে দেশি ও বিদেশী বেশ কিছু কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেছি।

মুক্তা চাষ দেখতে আসা আল জাবের বলেন, আরজান ভাইয়ের সাথে কথা বলে জানতে পারলাম মুক্ত চাষ একটি লাভজনক চাষ। আমার ইচ্ছা আছে আমি আরজান ভাইয়ের কাছ থেকে সকল প্রক্রিয়া জেনে নিয়ে মুক্তা চাষ করব।

এ বিষয়ে উপজেলা মৎস্য ফিল্ড ফ্যাসিলিটেটর মোঃ আরিফুর রহমান বলেন, আরজান মোল্লা ঝিনুকে বর্তমান মুক্তা গ্রেডে আওতায় আসছে আশাকরি তিনি ভালো লাভবান হবেন।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা হালিমা সরদার বলেন, আরজান মোল্লাকে মুক্তা চাষের ব্যাপারে খোঁজ খবর নিয়ে সার্বিকভাবে মৎস্য বিভাগ থেকে তাকে পরামর্শ প্রদান করে যাচ্ছি। তাকে আমরা একটা প্রদর্শনী দিয়েছি। তাকে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দিয়েছি। তার স্বপ্ন বাস্তবের পথে রয়েছে। আগ্রহী যে কাউকে মৎস্য অফিস থেকে এব্যাপারে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

বরগুনার তালতলীতে মুক্তা চাষে সফল হতে চায় আরজান

আপডেট সময় : ০৯:৫৬:১৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

 

মোঃ ইমরান হোসেন, বরগুনা প্রতিনিধিঃ

আমতলী: বরগুনা আমতলীতে চাওড়া ইউনিয়নের উঃ ঘটখালী গ্রামে মুক্তা চাষ করে সাফল্যের স্বপ্ন দেখছেন মোঃ আরজান মোল্লা। ৩ হাজার ৩ শত ঝিনুকে মুক্ত চাষ করে সকল খরচ বাদ দিয়ে ২৪ লাখ টাকা লাভের স্বপ্ন দেখছেন। মুক্তা একটি লাভ জনক চাষ। গহনা হিসেবে বিশ্বে মুক্তার কদর রয়েছে। মাছ চাষের সাথে সাথেও মুক্তা চাষ করা যায় এটির জন্য প্রয়োজন হয় না অতিরিক্ত কোন জায়গা।

মুক্তা চাষী মোঃ আরজান মোল্লা বলেন, ২০২১ সালের ইউটিউবের ভিডিও দেখে মুক্তা চাষের প্রতি আগ্রহ জাগে। তারপর আমি ৪ দিনের প্রশিক্ষণ নিয়ে আসি আমতলী ও বরিশাল থেকে। প্রথমবারে আমি পরীক্ষামূলকভাবে দেশীয় প্রজাতির মাছ এবং শামুক সংরক্ষণ ও উন্নয়ন প্রকল্প গোপালগঞ্জ এর আওতায় ২০২১/২০২২ অর্থ বছরে আমতলী উপজেলা সিনিয়র মৎস্য অফিস কর্তৃক সহযোগিতা ৩০০০ ঝিনুকে মুক্তা চাষ করি। পরবর্তিতে ৩০০ পিস ঝিনুক ব্যাক্তিগত ভাবে চাষ করি। প্রতি ঝিনুকে আমার খরচ হতো ৪০ থেকে ৫০ টাকা।

তিনি আরো বলেন, আগামী অক্টোবর থেকে বাণিজ্যিকভাবে মুক্তা রফতানি করা যাবে। এরই মধ্যে দেশি ও বিদেশী বেশ কিছু কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেছি।

মুক্তা চাষ দেখতে আসা আল জাবের বলেন, আরজান ভাইয়ের সাথে কথা বলে জানতে পারলাম মুক্ত চাষ একটি লাভজনক চাষ। আমার ইচ্ছা আছে আমি আরজান ভাইয়ের কাছ থেকে সকল প্রক্রিয়া জেনে নিয়ে মুক্তা চাষ করব।

এ বিষয়ে উপজেলা মৎস্য ফিল্ড ফ্যাসিলিটেটর মোঃ আরিফুর রহমান বলেন, আরজান মোল্লা ঝিনুকে বর্তমান মুক্তা গ্রেডে আওতায় আসছে আশাকরি তিনি ভালো লাভবান হবেন।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা হালিমা সরদার বলেন, আরজান মোল্লাকে মুক্তা চাষের ব্যাপারে খোঁজ খবর নিয়ে সার্বিকভাবে মৎস্য বিভাগ থেকে তাকে পরামর্শ প্রদান করে যাচ্ছি। তাকে আমরা একটা প্রদর্শনী দিয়েছি। তাকে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দিয়েছি। তার স্বপ্ন বাস্তবের পথে রয়েছে। আগ্রহী যে কাউকে মৎস্য অফিস থেকে এব্যাপারে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে।