ঢাকা ০৭:৫১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
পাঁচবিবিতে কোকতারা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে জানালার গ্রিল ভেঙ্গে দুধর্ষ চুরি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাক্টর দূর্ঘটনায় নিহত ২ পাঁচবিবিতে বুড়াবুড়ির মাজারে ২৫তম বাৎসরিক ওয়াজ মাহফিলের প্রস্তুতি সভা হিলি সীমান্তে দুই বাংলার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হরিপুরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত পাঁচবিবিতে নির্বাচনী মাঠে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোছাঃ রেবেকা সুলতানা বিরামপুরে সমতল ভূমিতে বসবাসরত ৩৫০ ক্ষুদ্র নৃ- গোষ্ঠীর মাঝে বিনামূল্যে মুরগি বিতরণ পাঁচবিবিতে আবু হোসাইন হত্যা মামলায় মা-ছেলেসহ ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড পাঁচবিবিতে বন্ধুত্বের মিলন মেলা-৯০ অনুষ্ঠিত হিলিতে দিনব্যাপি পণ্য প্রদর্শর্নী ও পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত

বিরামপুরে  জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৪ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৮:৫০:৩২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ মে ২০২৩
  • / ৪৫২ বার পড়া হয়েছে

ইব্রাহীম মিঞা বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৪ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বিরামপুর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আলোচনা সভা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বৃহস্পতিবার (২৫মে) সকাল ১১ ঘটিকার সময় বিরামপুর উপজেলা অডিটরিয়ামে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিমল কুমার সরকারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জনাব খায়রুল আলম রাজু চেয়ারম্যান বিরামপুর উপজেলা পরিষদ, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিরামপুর পৌরসভার জননন্দিত মেয়র আক্কাস আলী।এসময় উপস্থিত ছিলেন বিরামপুর উপজেলায় নবাগত সহকারী কমিশনার (ভূমি) এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মুরাদ হোসেন, বিরামপুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেজবাহ ইসলাম মন্ডল মেজবা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান উম্মে কুলসুম বানু,বিরামপুর থানা অফিসার ইনচার্জ সুমন কুমার মহন্ত , বিরামপুর সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল অদোত্ত ঘোষ অপু, বিরামপুর মহিলা ডিগ্রী কলেজের ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল মেসবাউল হক। এছাড়াও উপজেলা কর্মকর্তাগন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও প্রধানগণ, সূধীগনসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভায় বক্তারা জাতীয় জীবনে কবি নজরুল ইসলামের নানা অবদানের কথা তুলে ধরেন।
অন্যায়ের বিরুদ্ধে দ্রোহের আগুন জ্বালালেও প্রেমময় নজরুল হিমালয়ের মতোই শুভ্র। তাইতো তিনি দ্রোহ ও প্রেমের কবি। বাংলা সাহিত্যের গতিপথ পাল্টে বিদ্রোহ-প্রতিবাদ-প্রতিরোধের ধারা তৈরি করেন তিনিই। সাম্য, মানবতার বাণীও স্পষ্ট নজরুলের সাহিত্যকর্মে।
ইসলামি সঙ্গীত বা গজল এর জন্মদাতা নজরুল। তিন হাজারের ওপর গান রচনা ও সুর করেছেন। গবেষকরা বলছেন, অস্থির বিশ্বে নজরুলের গানই তৈরি করতে পারে অসাম্প্রদায়িক সমাজ।
১৯৭৬ সালে একুশে পদক পান তিনি। ঐ বছরের ২৯ আগস্ট চলে যান না ফেরার দেশে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

বিরামপুরে  জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৪ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন

আপডেট সময় : ০৮:৫০:৩২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ মে ২০২৩

ইব্রাহীম মিঞা বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৪ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বিরামপুর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আলোচনা সভা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বৃহস্পতিবার (২৫মে) সকাল ১১ ঘটিকার সময় বিরামপুর উপজেলা অডিটরিয়ামে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিমল কুমার সরকারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জনাব খায়রুল আলম রাজু চেয়ারম্যান বিরামপুর উপজেলা পরিষদ, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিরামপুর পৌরসভার জননন্দিত মেয়র আক্কাস আলী।এসময় উপস্থিত ছিলেন বিরামপুর উপজেলায় নবাগত সহকারী কমিশনার (ভূমি) এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মুরাদ হোসেন, বিরামপুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেজবাহ ইসলাম মন্ডল মেজবা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান উম্মে কুলসুম বানু,বিরামপুর থানা অফিসার ইনচার্জ সুমন কুমার মহন্ত , বিরামপুর সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল অদোত্ত ঘোষ অপু, বিরামপুর মহিলা ডিগ্রী কলেজের ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল মেসবাউল হক। এছাড়াও উপজেলা কর্মকর্তাগন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও প্রধানগণ, সূধীগনসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভায় বক্তারা জাতীয় জীবনে কবি নজরুল ইসলামের নানা অবদানের কথা তুলে ধরেন।
অন্যায়ের বিরুদ্ধে দ্রোহের আগুন জ্বালালেও প্রেমময় নজরুল হিমালয়ের মতোই শুভ্র। তাইতো তিনি দ্রোহ ও প্রেমের কবি। বাংলা সাহিত্যের গতিপথ পাল্টে বিদ্রোহ-প্রতিবাদ-প্রতিরোধের ধারা তৈরি করেন তিনিই। সাম্য, মানবতার বাণীও স্পষ্ট নজরুলের সাহিত্যকর্মে।
ইসলামি সঙ্গীত বা গজল এর জন্মদাতা নজরুল। তিন হাজারের ওপর গান রচনা ও সুর করেছেন। গবেষকরা বলছেন, অস্থির বিশ্বে নজরুলের গানই তৈরি করতে পারে অসাম্প্রদায়িক সমাজ।
১৯৭৬ সালে একুশে পদক পান তিনি। ঐ বছরের ২৯ আগস্ট চলে যান না ফেরার দেশে।