ঢাকা ০১:১৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিরামপুরে ভূয়া ব্যাংক কর্মকর্তা আটক

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৪:১৩:০২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৩২ বার পড়া হয়েছে

 

ইব্রাহীম মিঞা, বিরামপুর(দিনাজপুর)প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুরের বিরামপুরে মেঘনা ব্যাংকের কর্মকর্তা পরিচয়ে চাকুরি দেওয়ার নাম করে মামুনুর রশিদ (৪০) নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে এলাকাবাসী।

বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাত ৮ টায় বিরামপুর উপজেলার মুকুন্দপুর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের বাদমুখা গ্রামে আঃ হালিমের বাসায় এ ঘটনা ঘটে।
ভুয়া ব্যাংক কর্মকর্তা পরিচয় দানকারী মামুনুর রশিদ বিরামপুর পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের দেবিপুর গ্রামের মনজের আলীর ছেলে।
জানাযায়, আঃ হালিমের ছেলে পাপ্পুকে মেঘনা ব্যাংকে চাকুরী দেয়ার কথা বলে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও তিরিশ হাজার টাকা নেয় ভূয়া ব্যাংক কর্মকর্তা মামুনুর। পরবর্তীতে পাপ্পুর চাকরি হবে না বলে তার স্ত্রীকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে আরো টাকার দাবি জানালে পাপ্পু বাড়িতে এসে টাকা নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর টাকা নেয়ার জন্য ভূয়া ব্যাংক কর্মকর্তা মামুনুর পাপ্পুর বাড়িতে উপস্থিত হয়। তার সাথে টাকা দেওয়ার বিষয়ে আলোচনা করলে ভূয়া ব্যাংক কর্মকর্তা মামুনুরের কথাবার্তায় সন্দেহ হলে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় তাকে আটক করে পাপ্পু।পরে জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ কল দিলে বিরামপুর থানার উপপরিদর্শক ওহাব ঘটনা স্থলে এসে উভয়ের মধ্যে টাকা ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ফেরত দেয়ার কথা বলে আপোষ করে মুচলেকা নিয়ে তাকে ছেড়ে দেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

বিরামপুরে ভূয়া ব্যাংক কর্মকর্তা আটক

আপডেট সময় : ০৪:১৩:০২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

 

ইব্রাহীম মিঞা, বিরামপুর(দিনাজপুর)প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুরের বিরামপুরে মেঘনা ব্যাংকের কর্মকর্তা পরিচয়ে চাকুরি দেওয়ার নাম করে মামুনুর রশিদ (৪০) নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে এলাকাবাসী।

বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাত ৮ টায় বিরামপুর উপজেলার মুকুন্দপুর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের বাদমুখা গ্রামে আঃ হালিমের বাসায় এ ঘটনা ঘটে।
ভুয়া ব্যাংক কর্মকর্তা পরিচয় দানকারী মামুনুর রশিদ বিরামপুর পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের দেবিপুর গ্রামের মনজের আলীর ছেলে।
জানাযায়, আঃ হালিমের ছেলে পাপ্পুকে মেঘনা ব্যাংকে চাকুরী দেয়ার কথা বলে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও তিরিশ হাজার টাকা নেয় ভূয়া ব্যাংক কর্মকর্তা মামুনুর। পরবর্তীতে পাপ্পুর চাকরি হবে না বলে তার স্ত্রীকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে আরো টাকার দাবি জানালে পাপ্পু বাড়িতে এসে টাকা নিয়ে যাওয়ার কথা বলেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর টাকা নেয়ার জন্য ভূয়া ব্যাংক কর্মকর্তা মামুনুর পাপ্পুর বাড়িতে উপস্থিত হয়। তার সাথে টাকা দেওয়ার বিষয়ে আলোচনা করলে ভূয়া ব্যাংক কর্মকর্তা মামুনুরের কথাবার্তায় সন্দেহ হলে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় তাকে আটক করে পাপ্পু।পরে জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ কল দিলে বিরামপুর থানার উপপরিদর্শক ওহাব ঘটনা স্থলে এসে উভয়ের মধ্যে টাকা ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ফেরত দেয়ার কথা বলে আপোষ করে মুচলেকা নিয়ে তাকে ছেড়ে দেন।