ঢাকা ০৩:৫৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
হিলি বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ বিরামপুর উপজেলায় ১০৩ বছরের বৃদ্ধা স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র নিলেন নাতি বৌয়ের কাঁধে ভর করে কিশোর কিশোরীর উজ্জ্বল ভবিষ্যত ও আলোকিত জীবন হিলিতে চেয়ারম্যান কাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট এর উদ্বোধন জয়পুরহাটে পুলিশ সুপার ম্যারাথন ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত পাঁচবিবিতে কোকতারা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে জানালার গ্রিল ভেঙ্গে দুধর্ষ চুরি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাক্টর দূর্ঘটনায় নিহত ২ পাঁচবিবিতে বুড়াবুড়ির মাজারে ২৫তম বাৎসরিক ওয়াজ মাহফিলের প্রস্তুতি সভা হিলি সীমান্তে দুই বাংলার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হরিপুরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

ভূরুঙ্গামারীতে জামাই শাশুড়ী আপত্তিকর অবস্থায় আটক

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৫:১১:৪০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৬ জুন ২০২৩
  • / ৩৯৮ বার পড়া হয়েছে

আরিফুল ইসলাম জয়, কুড়িগ্রাম ভূরুঙ্গামারী প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে আপন মেয়ের জামায়ের সাথে শাশুড়ির অনৈতিক সম্পর্কের ঘটনায় শাশুড়িকে তালাক দেওয়ার অভিযোগ।
সরে জমিনে গিয়ে জানা যায় উপজেলার সদর ইউনিয়নে ভাগভান্ডার এলাকার ৫জুন সোমবার সকালে স্থানীয়দের উপস্থিতিতে মৃত খাইরুল হকের ছেল শফিকুল ইসলাম(৩৫) এর স্ত্রী মাসুদা বেগম তার আপন বড় মেয়ের জামাই আশাদুল হকের সাথে অনৈতিক সম্পর্কের যেরে তাকে তালাক দেয়।

শফিকুল ইসলাম বলেন আমি টাইলস মিস্ত্রির কাজ করি।সকালে বাড়ির থেকে কাজে যাই রাত্রে বাড়িতে আসি। আমার মেয়েকে দেড় বছর আগে বিয়ে দিয়েছি। কিছুদিন থেকে আমার স্ত্রী এবং জামাইয়ের মধ্যে নৈতিক সম্পর্কে তৈরী হয়েছে এমন সন্দেহ হয়। এরই সূত্র ধরে গত রবিবার আমি কাজ থেকে ফিরে রাত্রে খাওয়া দাওয়া করে শুয়ে পড়ি। আমার জামাইও সেদিন আমার বাড়িতে আসছিল মধ্যরাতে আমার স্ত্রীকে পাশে না পেয়ে অন্য রুমে গিয়ে দেখি জামাই মিলে অনৈতিক মেলামেশা শুরু করে। দুজনকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে নিজেকে সহ‍্য করতে না পেরে জ্ঞান হারিয়ে ফেলি। আমার আত্মীয়-স্বজন ও গ্রামবাসী এসে ঘটনা সত্যতা পেয়ে আমাকে হাসপাতালে নিয়ে যায় এবং গতকাল সোমবার সালিশি বৈঠকের মাধ্যমে আমার স্ত্রীকে তালাক দেই।
অভিযুক্ত শাশুড়ি মাসুদা বেগম বিষয়টি অস্বীকার করে বলে এটা মিথ্যা কথা।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যাক্তি জানান অভিযুক্ত মাসুদা বেগম এর আগেও অন্য ছেলের সাথে এরকম ঘটনা ঘটিয়েছে সেটা সালিসি বৌঠকের মাধ্যমে মিমাংসা করে শোধরানোর সুযোগ দেওয়া হয়েছিলো। সে পুনরায় জামাই সাথে এরকম জঘন্যতম ঘটনা ঘটিয়েছে।
শাশুড়ী জামাইয়ের এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ভূরুঙ্গামারীতে জামাই শাশুড়ী আপত্তিকর অবস্থায় আটক

আপডেট সময় : ০৫:১১:৪০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৬ জুন ২০২৩

আরিফুল ইসলাম জয়, কুড়িগ্রাম ভূরুঙ্গামারী প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে আপন মেয়ের জামায়ের সাথে শাশুড়ির অনৈতিক সম্পর্কের ঘটনায় শাশুড়িকে তালাক দেওয়ার অভিযোগ।
সরে জমিনে গিয়ে জানা যায় উপজেলার সদর ইউনিয়নে ভাগভান্ডার এলাকার ৫জুন সোমবার সকালে স্থানীয়দের উপস্থিতিতে মৃত খাইরুল হকের ছেল শফিকুল ইসলাম(৩৫) এর স্ত্রী মাসুদা বেগম তার আপন বড় মেয়ের জামাই আশাদুল হকের সাথে অনৈতিক সম্পর্কের যেরে তাকে তালাক দেয়।

শফিকুল ইসলাম বলেন আমি টাইলস মিস্ত্রির কাজ করি।সকালে বাড়ির থেকে কাজে যাই রাত্রে বাড়িতে আসি। আমার মেয়েকে দেড় বছর আগে বিয়ে দিয়েছি। কিছুদিন থেকে আমার স্ত্রী এবং জামাইয়ের মধ্যে নৈতিক সম্পর্কে তৈরী হয়েছে এমন সন্দেহ হয়। এরই সূত্র ধরে গত রবিবার আমি কাজ থেকে ফিরে রাত্রে খাওয়া দাওয়া করে শুয়ে পড়ি। আমার জামাইও সেদিন আমার বাড়িতে আসছিল মধ্যরাতে আমার স্ত্রীকে পাশে না পেয়ে অন্য রুমে গিয়ে দেখি জামাই মিলে অনৈতিক মেলামেশা শুরু করে। দুজনকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে নিজেকে সহ‍্য করতে না পেরে জ্ঞান হারিয়ে ফেলি। আমার আত্মীয়-স্বজন ও গ্রামবাসী এসে ঘটনা সত্যতা পেয়ে আমাকে হাসপাতালে নিয়ে যায় এবং গতকাল সোমবার সালিশি বৈঠকের মাধ্যমে আমার স্ত্রীকে তালাক দেই।
অভিযুক্ত শাশুড়ি মাসুদা বেগম বিষয়টি অস্বীকার করে বলে এটা মিথ্যা কথা।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যাক্তি জানান অভিযুক্ত মাসুদা বেগম এর আগেও অন্য ছেলের সাথে এরকম ঘটনা ঘটিয়েছে সেটা সালিসি বৌঠকের মাধ্যমে মিমাংসা করে শোধরানোর সুযোগ দেওয়া হয়েছিলো। সে পুনরায় জামাই সাথে এরকম জঘন্যতম ঘটনা ঘটিয়েছে।
শাশুড়ী জামাইয়ের এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।