ঢাকা ০৯:১৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মেঘনায় দেখা নেই ইলিশের; জেলে পল্লীতে হাহাকার

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০২:৪১:২৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ মে ২০২৩
  • / ৪১৭ বার পড়া হয়েছে

নিজাম উদ্দিন তজুমদ্দিন প্রতিনিধি (ভোলা) :
ভোলার তজুমদ্দিনের মেঘনা নদীতে ভরা মৌসুমেও দেখা মিলছে না ইলিশের। ইলিশ না পেয়ে নদী থেকে খালি হাতে বাড়ি ফিরছেন জেলেরা। অথচ এখন ইলিশের মৌসুম। লাখ লাখ টাকা খরচ করে ফিশিং ট্রলার নিয়ে ১২ থেকে ১৪ জন জেলে মাছ শিকারে গিয়ে খালি হাতে ফিরছে।

তজুমদ্দিনের মৎস্য আড়তদার সিরাজুল ইসলাম বলেন, নদীতে অনেক দিনের নিষেধাজ্ঞা ছিল। এখন আবার সাগরে।ট্রলারের মালিকরা মোটা অংকের টাকা খরচ করে জেলেদের নদীতে পাঠিয়ে খরচের টাকাও ওঠাতে পারছেন না। এ অবস্থায় ট্রলার মালিক, আড়তদার ও জেলেদের না খেয়ে মরার পালা।

তজুমদ্দিনের শশীগঞ্জ, চৌমুহনী, মহেষখালি, স্লুইস খাল, বাগের খাল ও ধরনীর খাল এলাকার জেলে পল্লীতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পরিবার-পরিজন নিয়ে জেলেরা যেমন কষ্টে দিন পার করছেন, তেমনি ফিশিং ট্রলার মালিক ও আড়তদাররাও ধার-দেনায় জড়িয়ে পড়েছেন। মেঘনায় চলতি বছরের অফ সিজনে কিছু ইলিশ দেখা গেলেও এখন মৌসুমের সময় ইলিশ নেই বললেই চলে। এতে করে এক ধরনের হাহাকার চলছে জেলে পল্লী গুলোতে।

এ ব্যাপারে তজুমদ্দিন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আমির হোসেন জানান, মেঘনা নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে চর পড়ায় সাগর থেকে মাছ আসতে বাধা সৃষ্টি হচ্ছে। তাই নদীতে ইলিশের অভাব দেখা দিয়েছে । ভারি বৃষ্টি এবং বাতাস হলে নদীতে মাছের দেখা মিলবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

মেঘনায় দেখা নেই ইলিশের; জেলে পল্লীতে হাহাকার

আপডেট সময় : ০২:৪১:২৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ মে ২০২৩

নিজাম উদ্দিন তজুমদ্দিন প্রতিনিধি (ভোলা) :
ভোলার তজুমদ্দিনের মেঘনা নদীতে ভরা মৌসুমেও দেখা মিলছে না ইলিশের। ইলিশ না পেয়ে নদী থেকে খালি হাতে বাড়ি ফিরছেন জেলেরা। অথচ এখন ইলিশের মৌসুম। লাখ লাখ টাকা খরচ করে ফিশিং ট্রলার নিয়ে ১২ থেকে ১৪ জন জেলে মাছ শিকারে গিয়ে খালি হাতে ফিরছে।

তজুমদ্দিনের মৎস্য আড়তদার সিরাজুল ইসলাম বলেন, নদীতে অনেক দিনের নিষেধাজ্ঞা ছিল। এখন আবার সাগরে।ট্রলারের মালিকরা মোটা অংকের টাকা খরচ করে জেলেদের নদীতে পাঠিয়ে খরচের টাকাও ওঠাতে পারছেন না। এ অবস্থায় ট্রলার মালিক, আড়তদার ও জেলেদের না খেয়ে মরার পালা।

তজুমদ্দিনের শশীগঞ্জ, চৌমুহনী, মহেষখালি, স্লুইস খাল, বাগের খাল ও ধরনীর খাল এলাকার জেলে পল্লীতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পরিবার-পরিজন নিয়ে জেলেরা যেমন কষ্টে দিন পার করছেন, তেমনি ফিশিং ট্রলার মালিক ও আড়তদাররাও ধার-দেনায় জড়িয়ে পড়েছেন। মেঘনায় চলতি বছরের অফ সিজনে কিছু ইলিশ দেখা গেলেও এখন মৌসুমের সময় ইলিশ নেই বললেই চলে। এতে করে এক ধরনের হাহাকার চলছে জেলে পল্লী গুলোতে।

এ ব্যাপারে তজুমদ্দিন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আমির হোসেন জানান, মেঘনা নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে চর পড়ায় সাগর থেকে মাছ আসতে বাধা সৃষ্টি হচ্ছে। তাই নদীতে ইলিশের অভাব দেখা দিয়েছে । ভারি বৃষ্টি এবং বাতাস হলে নদীতে মাছের দেখা মিলবে।