ঢাকা ১২:১৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

মেহেন্দীগঞ্জে অভিনব কায়দায় গরু জবাই করে মাংস চুরি

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০১:১৭:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ জুন ২০২৩
  • / ৪৫৩ বার পড়া হয়েছে

মোঃ মশিউর রহমান সুমন, বরিশাল, মেহেন্দীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলাধীন উলানিয়া ইউনিয়নের সলদী গ্রামে অভিনব কায়দায় গরু জবাই করে মাংস চুরির অভিযোগ পাওয়া গেছে।
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, উলানিয়া ইউনিয়নের সলদী গ্রামের কামাল চৌকিদারের গোয়ালঘর থেকে (৯জুন) শুক্রবার গভীর রাতে একটি গরু চুরি হয়। প্রতিদিনের ন্যায় গরুর মালিক কামাল চৌকিদার গরুটি গোয়ালঘরে বেধে রাখে। পরদিন সকাল বেলা গোয়ালঘরে গিয়ে গরুটি না দেখে খোঁজাখুঁজি করে একই গ্রামের আকবর সিকদারের পরিত্যাক্ত ঘরে গরুর চামড়া ও রক্ত দেখে চিশ্চিত করে গরুটি জবাই করে চোর চক্র মাংস নিয়ে পালিয়ে গেছে।

এ ঘটনায় গরুর মালিক কামাল চৌকিদার জানান, কোরবানির সময় গরুটি বিক্রি করার জন্য আমরা গরুটি লালন পালন করে আসছি। গরুটির দাম আনুমানিক ১লক্ষ ৫০হাজার টাকা হবে।

এ ব্যাপারে মেহেন্দীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, আমরা এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

মেহেন্দীগঞ্জে অভিনব কায়দায় গরু জবাই করে মাংস চুরি

আপডেট সময় : ০১:১৭:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ জুন ২০২৩

মোঃ মশিউর রহমান সুমন, বরিশাল, মেহেন্দীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলাধীন উলানিয়া ইউনিয়নের সলদী গ্রামে অভিনব কায়দায় গরু জবাই করে মাংস চুরির অভিযোগ পাওয়া গেছে।
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, উলানিয়া ইউনিয়নের সলদী গ্রামের কামাল চৌকিদারের গোয়ালঘর থেকে (৯জুন) শুক্রবার গভীর রাতে একটি গরু চুরি হয়। প্রতিদিনের ন্যায় গরুর মালিক কামাল চৌকিদার গরুটি গোয়ালঘরে বেধে রাখে। পরদিন সকাল বেলা গোয়ালঘরে গিয়ে গরুটি না দেখে খোঁজাখুঁজি করে একই গ্রামের আকবর সিকদারের পরিত্যাক্ত ঘরে গরুর চামড়া ও রক্ত দেখে চিশ্চিত করে গরুটি জবাই করে চোর চক্র মাংস নিয়ে পালিয়ে গেছে।

এ ঘটনায় গরুর মালিক কামাল চৌকিদার জানান, কোরবানির সময় গরুটি বিক্রি করার জন্য আমরা গরুটি লালন পালন করে আসছি। গরুটির দাম আনুমানিক ১লক্ষ ৫০হাজার টাকা হবে।

এ ব্যাপারে মেহেন্দীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, আমরা এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।