ঢাকা ০৪:০৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
পাঁচবিবিতে বুড়াবুড়ির মাজারে ২৫তম বাৎসরিক ওয়াজ মাহফিলের প্রস্তুতি সভা হিলি সীমান্তে দুই বাংলার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হরিপুরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত পাঁচবিবিতে নির্বাচনী মাঠে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোছাঃ রেবেকা সুলতানা বিরামপুরে সমতল ভূমিতে বসবাসরত ৩৫০ ক্ষুদ্র নৃ- গোষ্ঠীর মাঝে বিনামূল্যে মুরগি বিতরণ পাঁচবিবিতে আবু হোসাইন হত্যা মামলায় মা-ছেলেসহ ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড পাঁচবিবিতে বন্ধুত্বের মিলন মেলা-৯০ অনুষ্ঠিত হিলিতে দিনব্যাপি পণ্য প্রদর্শর্নী ও পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত পাঁচবিবিতে রেলওয়ের সম্পত্তি লীজকে কেন্দ্র করে সংবাদ সম্মেলন পাঁচবিবিতে বণিক সমিতির ৫ম সাধারণ সভায় আহবায়ক কমিটি ঘোষনা একাংশের আপত্তি

রাণীশংকৈলে চিকিৎসকের অবহেলায় আড়াই লক্ষ টাকা মূল্যের একটি গাভীর মৃত্যু

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১১:২১:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৮ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৩৫৬ বার পড়া হয়েছে

 

একে আজাদ, রাণীশংকৈল প্রতিনিধি:

রাণীশংকৈলে পশু হাসপাতালের চিকিৎসকের অবহেলায় প্রায় ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা মুল্যের একটি গাভি গরু’র মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি গতকাল মঙ্গলবার উপজেলার বাচোর ইউনিয়নের মস্তানি টাউন এলাকার আকাশ আলীর গরু খামারে ঘটেছে।
জানা গেছে, গরুটির প্রসবজনিত সমস্যা হলে উপজেলা প্রাণীসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারী হাসপাতালে খবর দিলে চিকিৎসক করিমুল ইসলাম গরুটির সার্বিক বিষয় দেখে বলেন, গরুটির বাচ্চা প্রসব করাতে হলে এটিকে সিজারিয়ান ডেলিভারী করাতে হবে। চিকিৎসকের সিদ্বান্তে গরু’র মালিক সিজার করার অনুমতি দিলে চিকিৎসক করিমুল ইসলাম আরো কয়েকজন চিকিৎসকের সহায়তায় সিজার করেন। তবে চিকিৎসক সিজারের জন্য গরুর পেট কাটলেও গরু’র বাচ্চা বের করার সময় জরায়ুর কিছু অংশ ছিড়ে ফেলে। তখন গরুটি কিছুটা নাজেহাল হয়ে পড়ে। ওই অবস্থায় কোন রকম গরু’র বাচ্চাটি পেট থেকে বের করে, দায় সারাভাবে সেলাই দেওয়া হয়।
গরুর মালিক আকাশ ইসলাম বলেন, পশু হাসপাতালের চিকিৎসক করিমুল ইসলামের অবহেলায় এবং ভুল চিকিৎসায় আমার এত দামী গরুটি মৃত্যু হয়েছে। রাতে গরুটির সিজার করার পর গরুটির অবস্থা খারাপের দিকে গেলে চিকিৎসক করিমুল ইসলামকে খবর দিলেও তিনি আর এখানে আসেননি এবং কি গরুটির কোন খোঁজ খবর পর্যন্ত নেননি। ভুল চিকিৎসায় যেন এভাবে আর কোন গরু না মরে এ জন্য চিকিৎসক করিমুলের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী করেন তিনি।
এবিষয়ে রানীশংকৈল উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা মৌসুমি আকতার (ভারপ্রাপ্ত) বলেন, গরুটি মারা গেছে সেটা সম্পর্কে আমি আজকে জেনেছি চিকিৎসক করিমুল ইসলাম আমাকে বলেছে। তবে চিকিৎসক ডিএলও স্যারর অনুমতি নিয়েই সিজার করেছে। গুরুটির বাচ্চা দুই দিন আগেই পেটে মারা যাওয়ায় সিজার করা ছাড়া উপায় ছিল না। তবে খামারি বলছে চিকিৎসকের ভুল আর অবহেলায় আমার শখের গরুটি মারাগেল আমি এর বিচার চাই।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

রাণীশংকৈলে চিকিৎসকের অবহেলায় আড়াই লক্ষ টাকা মূল্যের একটি গাভীর মৃত্যু

আপডেট সময় : ১১:২১:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৮ অগাস্ট ২০২৩

 

একে আজাদ, রাণীশংকৈল প্রতিনিধি:

রাণীশংকৈলে পশু হাসপাতালের চিকিৎসকের অবহেলায় প্রায় ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা মুল্যের একটি গাভি গরু’র মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি গতকাল মঙ্গলবার উপজেলার বাচোর ইউনিয়নের মস্তানি টাউন এলাকার আকাশ আলীর গরু খামারে ঘটেছে।
জানা গেছে, গরুটির প্রসবজনিত সমস্যা হলে উপজেলা প্রাণীসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারী হাসপাতালে খবর দিলে চিকিৎসক করিমুল ইসলাম গরুটির সার্বিক বিষয় দেখে বলেন, গরুটির বাচ্চা প্রসব করাতে হলে এটিকে সিজারিয়ান ডেলিভারী করাতে হবে। চিকিৎসকের সিদ্বান্তে গরু’র মালিক সিজার করার অনুমতি দিলে চিকিৎসক করিমুল ইসলাম আরো কয়েকজন চিকিৎসকের সহায়তায় সিজার করেন। তবে চিকিৎসক সিজারের জন্য গরুর পেট কাটলেও গরু’র বাচ্চা বের করার সময় জরায়ুর কিছু অংশ ছিড়ে ফেলে। তখন গরুটি কিছুটা নাজেহাল হয়ে পড়ে। ওই অবস্থায় কোন রকম গরু’র বাচ্চাটি পেট থেকে বের করে, দায় সারাভাবে সেলাই দেওয়া হয়।
গরুর মালিক আকাশ ইসলাম বলেন, পশু হাসপাতালের চিকিৎসক করিমুল ইসলামের অবহেলায় এবং ভুল চিকিৎসায় আমার এত দামী গরুটি মৃত্যু হয়েছে। রাতে গরুটির সিজার করার পর গরুটির অবস্থা খারাপের দিকে গেলে চিকিৎসক করিমুল ইসলামকে খবর দিলেও তিনি আর এখানে আসেননি এবং কি গরুটির কোন খোঁজ খবর পর্যন্ত নেননি। ভুল চিকিৎসায় যেন এভাবে আর কোন গরু না মরে এ জন্য চিকিৎসক করিমুলের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী করেন তিনি।
এবিষয়ে রানীশংকৈল উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা মৌসুমি আকতার (ভারপ্রাপ্ত) বলেন, গরুটি মারা গেছে সেটা সম্পর্কে আমি আজকে জেনেছি চিকিৎসক করিমুল ইসলাম আমাকে বলেছে। তবে চিকিৎসক ডিএলও স্যারর অনুমতি নিয়েই সিজার করেছে। গুরুটির বাচ্চা দুই দিন আগেই পেটে মারা যাওয়ায় সিজার করা ছাড়া উপায় ছিল না। তবে খামারি বলছে চিকিৎসকের ভুল আর অবহেলায় আমার শখের গরুটি মারাগেল আমি এর বিচার চাই।