ঢাকা ০৩:৪৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিংড়ায় পানিতে পড়ে শিশুর মৃত্যু

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৩:২২:১১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুলাই ২০২৩
  • / ৩৬৩ বার পড়া হয়েছে

মো:আজিজুল হাকিম, সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি:

নাটোরের সিংড়া উপজেলায় পানিতে পড়ে আয়শা খাতুন নামে তিন বছর বয়সি এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার সকালের দিকে উপজেলার ১০ নং চৌগ্রাম ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড হুলহুলিয়া চকপাড়া গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত শিশু মোছাঃ আয়শা একই গ্রামের সুলতান প্রামাণিক এর মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার সকাল ১০ টার দিকে বড় বোনের সাথে বাড়ির পাশে থাকা জাম গাছে জাম পারতে যায় আয়শা খাতুন। বড় বোন সুস্মিতা খাতুন (১৫) গাছে উঠে জাম পারছিলো আর ছোট বোন আয়শা খাতুন গাছের নীচে থেকে জাম কুড়াচ্ছিলো। জাম কুড়ানোর একপর্যায়ে বোন সুস্মিতার অগোচরে ঘরের পাশে থাকা পানিতে পরে যায় আয়শা। এ সময় পানিতে পড়ে নিখোঁজ হয় আয়শা খাতুন। গাছ থেকে নেমে বোন সুস্মিতা তাকে দেখতে না পেয়ে পরিবারের লোকজনকে জানালে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন।

একপর্যায়ে পানিতে আয়শাকে ভাসতে দেখেন তার বোন সুস্মিতা। পরে তারা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসক এর কাছে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হুলহুলিয়া গ্রাম পরিষদের চেয়ারম্যান আল তাওফিক পরশ নিহতের ঘটনা সত্যতা স্বীকার করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

সিংড়ায় পানিতে পড়ে শিশুর মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৩:২২:১১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুলাই ২০২৩

মো:আজিজুল হাকিম, সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি:

নাটোরের সিংড়া উপজেলায় পানিতে পড়ে আয়শা খাতুন নামে তিন বছর বয়সি এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার সকালের দিকে উপজেলার ১০ নং চৌগ্রাম ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড হুলহুলিয়া চকপাড়া গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত শিশু মোছাঃ আয়শা একই গ্রামের সুলতান প্রামাণিক এর মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার সকাল ১০ টার দিকে বড় বোনের সাথে বাড়ির পাশে থাকা জাম গাছে জাম পারতে যায় আয়শা খাতুন। বড় বোন সুস্মিতা খাতুন (১৫) গাছে উঠে জাম পারছিলো আর ছোট বোন আয়শা খাতুন গাছের নীচে থেকে জাম কুড়াচ্ছিলো। জাম কুড়ানোর একপর্যায়ে বোন সুস্মিতার অগোচরে ঘরের পাশে থাকা পানিতে পরে যায় আয়শা। এ সময় পানিতে পড়ে নিখোঁজ হয় আয়শা খাতুন। গাছ থেকে নেমে বোন সুস্মিতা তাকে দেখতে না পেয়ে পরিবারের লোকজনকে জানালে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন।

একপর্যায়ে পানিতে আয়শাকে ভাসতে দেখেন তার বোন সুস্মিতা। পরে তারা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসক এর কাছে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হুলহুলিয়া গ্রাম পরিষদের চেয়ারম্যান আল তাওফিক পরশ নিহতের ঘটনা সত্যতা স্বীকার করেছেন।