ঢাকা ০৬:৩০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
পাঁচবিবিতে কোকতারা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে জানালার গ্রিল ভেঙ্গে দুধর্ষ চুরি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাক্টর দূর্ঘটনায় নিহত ২ পাঁচবিবিতে বুড়াবুড়ির মাজারে ২৫তম বাৎসরিক ওয়াজ মাহফিলের প্রস্তুতি সভা হিলি সীমান্তে দুই বাংলার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হরিপুরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত পাঁচবিবিতে নির্বাচনী মাঠে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোছাঃ রেবেকা সুলতানা বিরামপুরে সমতল ভূমিতে বসবাসরত ৩৫০ ক্ষুদ্র নৃ- গোষ্ঠীর মাঝে বিনামূল্যে মুরগি বিতরণ পাঁচবিবিতে আবু হোসাইন হত্যা মামলায় মা-ছেলেসহ ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড পাঁচবিবিতে বন্ধুত্বের মিলন মেলা-৯০ অনুষ্ঠিত হিলিতে দিনব্যাপি পণ্য প্রদর্শর্নী ও পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত

সুনামগঞ্জে হত্যা মামলায় ৭ আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৫:৫৯:২১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ অগাস্ট ২০২৩
  • / ৩৮৭ বার পড়া হয়েছে

সুনামগঞ্জ দোয়ারা বাজার প্রতিনিধিঃ

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে কেরাম বোর্ডের গুটি চাওয়াকে কেন্দ্র করে যুবক হত্যা মামলায় সাতজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার (২০ আগস্ট) দুপুরে সুনামগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত ২য় এর বিচারক ঝলক রায় এ রায় দেন। যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রাপ্ত আসামিরা হলেন দোয়ারাবাজার উপজেলার বাজিতপুর গ্রামের মতিন মিয়া ,নুরুল হক,আনর আলী, আফতাব,সিরাজ আলী, মংলা মিয়া ও হেলাল।

রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাড গোলাম মোস্তফা।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০৬ সালে দোয়ারাবাজার উপজেলার বাজিতপুর গ্রামে সড়কের পাশে একই গ্রামের মাসুক মিয়া ও হুশিয়ার আলীর ভুসিমালের দোকানের ব্যবসা ছিলো। ঘটনার দিন বিকেলে হুশিয়ার আলী মাসুক মিয়ার কাছে কেরাম খেলার জন্য বোর্ডের গুটি চায় কিন্তু মাসুক মিয়া গুটি না দেয়ায় তাদের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়।

এরই জেরে বিকেল ৫ টার দিকে হুশিয়ার আলী তার সহযোগী আসামিরা দলবদ্ধ হয়ে মাসুক মিয়া ও তার স্বজনদের উপর হামলা চালায়। এসময় মাসুক মিয়ার চাচা জামাল উদ্দিনকে আসামিরা তার বুকে সুলফি দিয়ে আঘাত করলে জামাল উদ্দিন গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে যাবার পথে মারা যান। এ ঘটনায় নিহতের ভাই আব্দুর রউফ বাদি হয়ে ১৮ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার দীর্ঘ বিচারকার্য শেষে রোববার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ২য় আদালত ৭ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করেন এবং ২ জনকে ১ মাস করে আর আরো ৩ জনকে ৩ মাস করে কারাদণ্ড প্রদান করেন। রায় ঘোষণার সময় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রাপ্ত ৫ জন এজলাসে উপস্থিত ছিলেন বাকি মংলা ও হেলাল মিয়া পলাতক।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

সুনামগঞ্জে হত্যা মামলায় ৭ আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

আপডেট সময় : ০৫:৫৯:২১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২০ অগাস্ট ২০২৩

সুনামগঞ্জ দোয়ারা বাজার প্রতিনিধিঃ

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে কেরাম বোর্ডের গুটি চাওয়াকে কেন্দ্র করে যুবক হত্যা মামলায় সাতজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার (২০ আগস্ট) দুপুরে সুনামগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত ২য় এর বিচারক ঝলক রায় এ রায় দেন। যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রাপ্ত আসামিরা হলেন দোয়ারাবাজার উপজেলার বাজিতপুর গ্রামের মতিন মিয়া ,নুরুল হক,আনর আলী, আফতাব,সিরাজ আলী, মংলা মিয়া ও হেলাল।

রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাড গোলাম মোস্তফা।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০৬ সালে দোয়ারাবাজার উপজেলার বাজিতপুর গ্রামে সড়কের পাশে একই গ্রামের মাসুক মিয়া ও হুশিয়ার আলীর ভুসিমালের দোকানের ব্যবসা ছিলো। ঘটনার দিন বিকেলে হুশিয়ার আলী মাসুক মিয়ার কাছে কেরাম খেলার জন্য বোর্ডের গুটি চায় কিন্তু মাসুক মিয়া গুটি না দেয়ায় তাদের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়।

এরই জেরে বিকেল ৫ টার দিকে হুশিয়ার আলী তার সহযোগী আসামিরা দলবদ্ধ হয়ে মাসুক মিয়া ও তার স্বজনদের উপর হামলা চালায়। এসময় মাসুক মিয়ার চাচা জামাল উদ্দিনকে আসামিরা তার বুকে সুলফি দিয়ে আঘাত করলে জামাল উদ্দিন গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে যাবার পথে মারা যান। এ ঘটনায় নিহতের ভাই আব্দুর রউফ বাদি হয়ে ১৮ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার দীর্ঘ বিচারকার্য শেষে রোববার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ২য় আদালত ৭ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করেন এবং ২ জনকে ১ মাস করে আর আরো ৩ জনকে ৩ মাস করে কারাদণ্ড প্রদান করেন। রায় ঘোষণার সময় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রাপ্ত ৫ জন এজলাসে উপস্থিত ছিলেন বাকি মংলা ও হেলাল মিয়া পলাতক।