ঢাকা ০২:৫৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
হিলি বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ বিরামপুর উপজেলায় ১০৩ বছরের বৃদ্ধা স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র নিলেন নাতি বৌয়ের কাঁধে ভর করে কিশোর কিশোরীর উজ্জ্বল ভবিষ্যত ও আলোকিত জীবন হিলিতে চেয়ারম্যান কাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট এর উদ্বোধন জয়পুরহাটে পুলিশ সুপার ম্যারাথন ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত পাঁচবিবিতে কোকতারা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে জানালার গ্রিল ভেঙ্গে দুধর্ষ চুরি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাক্টর দূর্ঘটনায় নিহত ২ পাঁচবিবিতে বুড়াবুড়ির মাজারে ২৫তম বাৎসরিক ওয়াজ মাহফিলের প্রস্তুতি সভা হিলি সীমান্তে দুই বাংলার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হরিপুরে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে এখনও হিমশিম অবস্থা নিম্ন আয়ের মানুষের

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১২:৩৭:৫১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুলাই ২০২৩
  • / ৩৪৩ বার পড়া হয়েছে

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে এখনও হিমশিম অবস্থা নিম্ন আয়ের মানুষের। বাড়তি আয় করেও চালানো যাচ্ছে না সংসার। বেড়েছে ব্রয়লার মুরগী ও সব ধরনের মাছের দাম। সুখবর নেই সবজির বাজারেও।

গার্মেন্টস কর্মী আসাদুল ইসলাম বলেন, ২০০ টাকা কেজিতে কাঁচামরিচ কিনে খাওয়া আমাদের জন্য কষ্টকর।

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে প্রয়োজনীয় সবকিছু সামলাতে হিমশিম অবস্থা আসাদুলের। তিনি বলেন, সবকিছুর বাড়তি দাম, কিছুটা বাড়তি আয়ের চেষ্টা করছেন নানাভাবে, তারপরও সামলানো যাচ্ছে না সবদিক।

শুক্রবার (২১ জুলাই) রাজধানীর কারওয়ান বাজার ঘুরে দেখা যায়, গত সপ্তাহের তুলনায় ১০ টাকা বেড়ে ব্রয়লারের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৭০ টাকায়। সোনালী মুরগি প্রতি কেজি ২৭০ টাকা, লেয়ার ৩৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ডিম প্রতি ডজন বিক্রি হচ্ছে ১৪০-১৪৫ টাকা।

চিংড়ি মাছ প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭০০ থেকে ৭৫০ টাকায়, দেশি রুই ৪৫০ থেকে ৫০০ টাকা, বোয়াল ৬০০ টাকা, আইড় ৬০০ টাকা, আর সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে ইলিশ।

বাজারের নিত্যপণ্যের দাম কমিয়ে সাধারণ মানুষের নাগালের মধ্যে আনতে সরকারের কাছে অনুরোধ সাধারণ মানুষের।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে এখনও হিমশিম অবস্থা নিম্ন আয়ের মানুষের

আপডেট সময় : ১২:৩৭:৫১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুলাই ২০২৩

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে এখনও হিমশিম অবস্থা নিম্ন আয়ের মানুষের। বাড়তি আয় করেও চালানো যাচ্ছে না সংসার। বেড়েছে ব্রয়লার মুরগী ও সব ধরনের মাছের দাম। সুখবর নেই সবজির বাজারেও।

গার্মেন্টস কর্মী আসাদুল ইসলাম বলেন, ২০০ টাকা কেজিতে কাঁচামরিচ কিনে খাওয়া আমাদের জন্য কষ্টকর।

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে প্রয়োজনীয় সবকিছু সামলাতে হিমশিম অবস্থা আসাদুলের। তিনি বলেন, সবকিছুর বাড়তি দাম, কিছুটা বাড়তি আয়ের চেষ্টা করছেন নানাভাবে, তারপরও সামলানো যাচ্ছে না সবদিক।

শুক্রবার (২১ জুলাই) রাজধানীর কারওয়ান বাজার ঘুরে দেখা যায়, গত সপ্তাহের তুলনায় ১০ টাকা বেড়ে ব্রয়লারের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৭০ টাকায়। সোনালী মুরগি প্রতি কেজি ২৭০ টাকা, লেয়ার ৩৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ডিম প্রতি ডজন বিক্রি হচ্ছে ১৪০-১৪৫ টাকা।

চিংড়ি মাছ প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭০০ থেকে ৭৫০ টাকায়, দেশি রুই ৪৫০ থেকে ৫০০ টাকা, বোয়াল ৬০০ টাকা, আইড় ৬০০ টাকা, আর সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে ইলিশ।

বাজারের নিত্যপণ্যের দাম কমিয়ে সাধারণ মানুষের নাগালের মধ্যে আনতে সরকারের কাছে অনুরোধ সাধারণ মানুষের।