ঢাকা ০৩:০৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গরীব কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিলো ছাত্রলীগ

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১১:২৫:০৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ মে ২০২৩
  • / ৩৫০ বার পড়া হয়েছে

 

তপন দাস,নীলফামারী প্রতিনিধিঃ

নীলফামারীতে অসহায় গরীব এক কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিলো বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।
বুধবার (২৪শে মে) দুপুরে নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার বালা গ্রাম ইউনিয়নের গরীব কৃষক পুষ্প রায়ের ৩৭ শতাংশ জমির ধান কেটে ঘরে তুলে দেন জলঢাকা উপজেলা ছাত্র লীগের নেতাকর্মীরা।

এবিষয়ে  কৃষক পুষ্প রায়ের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, ‘আমি একজন গরীর কৃষক আমি কোন রকমে এই ৩৭ শতাংশ জমিতে ধান চাষ করি তবে আমার ধান গুলো পেকে যাওয়ায় আমি কাটতে পারছি না অর্থের অভাবে তবে আমাদের জলঢাকা উপজেলার ছাত্র লীগের কর্মীরা আমার এই দুরবস্থার দেখে আজকে আমার ধান গুলো কেটে ঘরে তুলে দিলো আর আমি তাদের কি বলে ধন্যবাদ জানাবো তা ভাষা খুজে পাচ্ছি না তবে বঙ্গবন্ধুর সৈনিক ছাত্র লীগ যেন তাদের এমন মহৎ কাজ যেন প্রতি নিয়তো করে তাই তাদের প্রতি আমার দোয়া ও ভালো বাসা থাকবে অবিরাম।’
এদিকে ছাত্র লীগের এমন এক মহান কাজের প্রশংসা করে তাদের উৎসাহিত করেছেন জলঢাকা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শহীদ হোসেন রুবেল সহ সকল রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা।

এবিষয়ে ছাত্র লীগ নেতা মোহাম্মদ শাকিল হোসেন বলেন, ‘পুষ্প রায় দাদা টাকার অভাবে ধান কাটতে পাড়ছিলেন না এই বিষয়টি আমাদের নজরে আসলে আমরা সবাই মিলে তার ধান কেটে ঘরে তুলে দেই , আর ছাত্র লীগ সবসময়ই প্রস্তুত থাকে যেকোন সময় মানুষের পাশে থেকে সহযোগিতা করার জন্য।’

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

গরীব কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিলো ছাত্রলীগ

আপডেট সময় : ১১:২৫:০৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ মে ২০২৩

 

তপন দাস,নীলফামারী প্রতিনিধিঃ

নীলফামারীতে অসহায় গরীব এক কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিলো বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।
বুধবার (২৪শে মে) দুপুরে নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার বালা গ্রাম ইউনিয়নের গরীব কৃষক পুষ্প রায়ের ৩৭ শতাংশ জমির ধান কেটে ঘরে তুলে দেন জলঢাকা উপজেলা ছাত্র লীগের নেতাকর্মীরা।

এবিষয়ে  কৃষক পুষ্প রায়ের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, ‘আমি একজন গরীর কৃষক আমি কোন রকমে এই ৩৭ শতাংশ জমিতে ধান চাষ করি তবে আমার ধান গুলো পেকে যাওয়ায় আমি কাটতে পারছি না অর্থের অভাবে তবে আমাদের জলঢাকা উপজেলার ছাত্র লীগের কর্মীরা আমার এই দুরবস্থার দেখে আজকে আমার ধান গুলো কেটে ঘরে তুলে দিলো আর আমি তাদের কি বলে ধন্যবাদ জানাবো তা ভাষা খুজে পাচ্ছি না তবে বঙ্গবন্ধুর সৈনিক ছাত্র লীগ যেন তাদের এমন মহৎ কাজ যেন প্রতি নিয়তো করে তাই তাদের প্রতি আমার দোয়া ও ভালো বাসা থাকবে অবিরাম।’
এদিকে ছাত্র লীগের এমন এক মহান কাজের প্রশংসা করে তাদের উৎসাহিত করেছেন জলঢাকা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শহীদ হোসেন রুবেল সহ সকল রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা।

এবিষয়ে ছাত্র লীগ নেতা মোহাম্মদ শাকিল হোসেন বলেন, ‘পুষ্প রায় দাদা টাকার অভাবে ধান কাটতে পাড়ছিলেন না এই বিষয়টি আমাদের নজরে আসলে আমরা সবাই মিলে তার ধান কেটে ঘরে তুলে দেই , আর ছাত্র লীগ সবসময়ই প্রস্তুত থাকে যেকোন সময় মানুষের পাশে থেকে সহযোগিতা করার জন্য।’