ঢাকা ০৬:৪৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
পাঁচবিবিতে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দু-পক্ষের হট্টগোল জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে নেশার ইঞ্জেকশনসহ ৩ জন মাদকব্যবসায়ী গ্রেপ্তার হাকিমপুরে বসুন্ধরা শুভসংঘের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন পাঁচবিবিতে মেসি ট্রাক্টরের সাথে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১ পাঁচবিবিতে ২৭ ঘন্টা পর নদীতে ডুবে নিখোঁজ মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধার পাঁচবিবিতে তেল ও পাথরবাহী ২ ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ জন আহত বিরামপুরে ২ দফা দাবি আদায়ে দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্মবিরতি পাঁচবিবিতে প্রীতি ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত বিপদসীমার ওপরে তিস্তার পানি নকল কসমেটিকস উৎপাদন : ৭ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা সাড়ে ১৪ লাখ টাকা

সাতক্ষীরায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত মাছ ব্যবসায়ীর মৃত্যু

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৩:৩১:৩৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ মে ২০২৩
  • / ৩৭৪ বার পড়া হয়েছে

সাতক্ষীরা প্রথিনিধিঃ
সাতক্ষীরায় সড়ক দুর্ঘটনার ২২ ঘণ্টা পর আহত মাছ ব্যবসায়ী আবুল বাসারের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (১৭ মে) সকাল ৭টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নিহত মাছ ব্যবসায়ী আবুল বাসার (৫৫) সাতক্ষীরা সদর উপজেলার থানাঘাটা গ্রামের মৃত, মোকাদ্দেস আলীর ছেলে।

নিহতের মেয়ে সুরাইয়া খাতুন জানান, মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে তার বাবা আবুল বাসার তাকে লাবসা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নামিয়ে দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে সাতক্ষীরা-যশোর সড়কের লাবসা মা চম্পার দরগার পরবর্তী মোড়ে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা এসডি পরিবহন (ঢাকা মেট্রো-ব- ১৩-২৪৭০) তার বাবার মটর সাইকেলে সজোরে ধাক্কা দিলে তার বাবা ও মটর সাইকেলটি পরিবহনের তলায় চলে যায়। এসময় পরিবহনটি তার বাবাকে টেনে প্রায় ১০০ হাত দূরে নিয়ে যায়। ঘটনার পর স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

পরে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় মঙ্গলবার রাতে তাকে ঢাকা নিউরো সার্জিারিতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ভর্তি না নেওয়ায় তাকে রাত ১০টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সকাল সাতটার দিকে তার মৃত্যু হয়।

নিহত আবুল বাসারের বন্ধু ঢাকা ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সাদমান সাকিব জিকো জানান, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে ময়না তদন্ত শেষে বুধবার বিকেলে বাসারের লাশ সাতক্ষীরায় নিয়ে যাওয়া হবে।
সাতক্ষীরা সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো: নজরুল ইসলাম জানান, আবুল বাসারের মৃত্যুর খবর তিনি পেয়েছেন। তবে এ নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি। পরিবহনটি আটক করা হয়েছে। তবে চালক পালিয়ে গেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

সাতক্ষীরায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত মাছ ব্যবসায়ীর মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৩:৩১:৩৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ মে ২০২৩

সাতক্ষীরা প্রথিনিধিঃ
সাতক্ষীরায় সড়ক দুর্ঘটনার ২২ ঘণ্টা পর আহত মাছ ব্যবসায়ী আবুল বাসারের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (১৭ মে) সকাল ৭টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। নিহত মাছ ব্যবসায়ী আবুল বাসার (৫৫) সাতক্ষীরা সদর উপজেলার থানাঘাটা গ্রামের মৃত, মোকাদ্দেস আলীর ছেলে।

নিহতের মেয়ে সুরাইয়া খাতুন জানান, মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে তার বাবা আবুল বাসার তাকে লাবসা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নামিয়ে দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে সাতক্ষীরা-যশোর সড়কের লাবসা মা চম্পার দরগার পরবর্তী মোড়ে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা এসডি পরিবহন (ঢাকা মেট্রো-ব- ১৩-২৪৭০) তার বাবার মটর সাইকেলে সজোরে ধাক্কা দিলে তার বাবা ও মটর সাইকেলটি পরিবহনের তলায় চলে যায়। এসময় পরিবহনটি তার বাবাকে টেনে প্রায় ১০০ হাত দূরে নিয়ে যায়। ঘটনার পর স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

পরে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় মঙ্গলবার রাতে তাকে ঢাকা নিউরো সার্জিারিতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ভর্তি না নেওয়ায় তাকে রাত ১০টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সকাল সাতটার দিকে তার মৃত্যু হয়।

নিহত আবুল বাসারের বন্ধু ঢাকা ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সাদমান সাকিব জিকো জানান, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে ময়না তদন্ত শেষে বুধবার বিকেলে বাসারের লাশ সাতক্ষীরায় নিয়ে যাওয়া হবে।
সাতক্ষীরা সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো: নজরুল ইসলাম জানান, আবুল বাসারের মৃত্যুর খবর তিনি পেয়েছেন। তবে এ নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি। পরিবহনটি আটক করা হয়েছে। তবে চালক পালিয়ে গেছে।